আলওয়ার গণহত্যা মামলা এবার সুপ্রিম কোর্টে

নয়াদিল্লি: রাজস্থানের আলোয়ার গণহত্যার ঘটনা এখনও টাটকা৷ এবার সেই মামলাই গৃহীত হল সুপ্রিম কোর্টে৷ গণহত্যায় নিহত রাকবারের পরিবারের আবেদন রাখল সু্প্রিম কোর্ট৷ পরের সপ্তাবেই রাকবর হত্যা মামলার পর্যবেক্ষণ সুপ্রিম কোর্টে৷ জানা যাচ্ছে, গোটা মামলা পরিচালনার দায়িত্বে থাকবে সুপ্রিম কোর্টই৷

চলতি বছরের জুলাই মাসেই নৃশংস গণপিটুনিতে মৃত্যু হয় রাকবারের৷ গরু পাচারকারী সন্দেহে রাকবরকে ঘিরে চলে মারধর৷ রাজস্থানের আলোয়াড়ের এই ঘটনাটি গণপিটুনির বিরুদ্ধে আইন জারির পর পরই ঘটে৷ গো রক্ষা বাহিনী আলোয়ারের স্থানীয় বিধায়কের নাম নিয়ে হত্যালীলা চালায়৷ ঘটনায় গ্রেফতার তিন অভিযুক্ত ধর্মেন্দ্র,পরমজিৎ, নরেশ৷

                       আলোয়ারকাণ্ডে অভিয়ুক্ত ৩

- Advertisement -

গত সপ্তাহে পুলিশের পেশ করা ২৫ পাতার চার্জশিটে ছিল তিন অভিযুক্তেরই নাম৷ আলোয়ার কোর্টে গণহত্যা মামলার চার্জশিট পেশ করা হয়৷ তিন জনই আইপিসি ৩০২ ধারায় হত্যা, ৩৪১ ধারায় মিথ্যে অভিযোগ, ৩২৩ ধারায় আঘাত দেওয়া, ৩৪ ধারায় নির্দিষ্ট কারণে গমপিটুনির মামলায় অভিযুক্ত হয়েছে৷

পড়ুন:‘মোদী সরকারের পতন আসন্ন’

গণপিটুনি মামলায় ৩ জন ছাড়াও অভিযুক্ত আরও অনেকেই৷ আলোয়াড়ে ডেপুটি এসপি অশোক চৌহান জানাচ্ছেন, অন্যান্য অভিযুক্তরা এতটাই ছড়িয়ে ছিটিয়ে ছিল যে, তাদের বিরুদ্ধে নির্দিষ্ট ধারা প্রয়োগ করা যাচ্ছে না৷ গণপিটুনির সময় কার্যত দর্শকের দায়িত্ব নিয়েছিল পুলিশ বলে অভিযোগ৷ সেই প্রসঙ্গে অশোক চৌহানের দাবি,এই মামলায় পুলিশের ভূমিকাও প্রশ্নের আওতায়, তদন্ত চলছে৷

ঘটনার দিন রাকবারকে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে রাখা হয়৷ পুলিশের চোখের সামনে সব ঘটনা ঘটে৷ তাতেও রাকবারকে উদ্ধারে এগিয়ে আসেনি পুলিশ৷ হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাকবরকে মৃত ঘোষণা করা হয়৷ স্বস্তির বিষয় একটাই, রাকবার হত্যা মামলা এবার সুপ্রিম কোর্টের পর্যবেক্ষণে৷ নিহত রাকবারের পরিবার জানাচ্ছে, তাঁরা সুপ্রিম কোর্টের ন্যায়বিচারের উপরই ভরসা রাখছে৷

Advertisement
---