আমেরিকা থেকে পণ্য আমদানি বাড়াবে বেজিং

বেজিংঃ  দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে এবং বাণিজ্য যুদ্ধের ঝনঝনানি সামাল দিতে আমেরিকা থেকে আরও বেশি পণ্য ও পরিষেবা নিতে রাজি হল চিন। বিবিসি জানায়, চিনের এই উদ্যোগের ফলে বেজিংয়ের সঙ্গে বার্ষিক ৩৩ হাজার ৫০০ কোটি মার্কিন ডলার বাণিজ্য ঘাটতি ‘উল্লেখযোগ্য পরিমাণে হ্রাস’ পাবে বলে আশা প্রকাশ করেছে ওয়াশিংটন।

আমেরিকা ও চিনের পক্ষ থেকে এক যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, “উভয় পক্ষ আমেরিকার কৃষি ও শক্তি পণ্য রপ্তানি উল্লেখযোগ্য হারে বাড়াতে একমত হয়েছে। এ উদ্যোগ যুক্তরাষ্ট্রের উন্নয়ন ও কর্মসংস্থান বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে।” তবে আমেরিকা থেকে চিনের পণ্য আমদানি বাড়ানোর নতুন এই উদ্যোগে বাণিজ্য ঘাটতি ঠিক কি পরিমাণ হ্রাস পাবে সে বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু জানানো হয়নি। যদিও এর আগে হোয়াইট হাউজের পক্ষ থেকে বাণিজ্য ঘাটতি হ্রাসের লক্ষ্যমাত্রা ২০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বলেছিল। তবে আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে এই সম্পর্কে কিছু বলা হয়নি।

দুই দেশ পরস্পরের পণ্যের উপর বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার শুল্কারোপের যে হুমকি দিয়েছে সেগুলো বিলম্বিত বা বাতিল হবে কিনা সে বিষয়েও বিবৃতিতে কিছু বলা হয়নি। উভয় দেশই পরস্পর থেকে পণ্য আমদানির ওপর মোটা অংকের শুল্কারোপ করেছে। যদিও সেগুলো এখনো কার্যকর হয়নি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চিনের পণ্যের উপর ১৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার শুল্কারোপের হুমকি দিয়েছেন। ট্রাম্পের অভিযোগ, চিন ‘আমেরিকান ইনটালেকচ্যুয়াল প্রপার্টি’ চুরি করছে।

Advertisement ---
-----