বৃন্দাবনঃ  ডোকালাম ইস্যুতে কার্যত উত্তপ্ত সীমান্ত। ইতিমধ্যে যুদ্ধের শঙ্কায় সীমান্ত এলাকায় সেনাবাহিনীকে অপারেশনাল ‘হাই-অ্যালার্টে’ রাখা হয়েছে। এই অবস্থায় চিনের সমস্ত সামগ্রী বয়কট করে কড়া বার্তা দেওয়ার চেষ্টা কৃষ্ণের মন্দরে। এই বছর নজিরবিহীনভাবে বৃন্দাবনে জন্মাষ্টমীতে কোনও চিনের তৈরি সামগ্রী ব্যবহার না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বৃন্দাবনের সমস্ত মন্দির। আর এভাবে চিনকে কড়া বার্তা দিতে চাইছেন কৃষ্ণের মন্দিরের ভক্তরা।

শ্রীকৃষ্ণ সেবা জন্মস্থান সেবা সংস্থানের বক্তব্য, এই বছর মন্দির সাজাতে কোনও চিনা আলো কিংবা অন্যান্য সামগ্রী কেনা হবে না। এমনকি, কোনও মন্দিরে তা লাগানোও হবে না। ডোকালাম নিয়ে যেভাবে একের পর এক হুমকি ভারতকে দিয়ে যাচ্ছে চিন। তার প্রতিবাদ জানাতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন শ্রীকৃষ্ণ সেবা জন্মস্থান সেবা সংস্থানের আধিকারিকরা। তাঁদের এই সিদ্ধান্তে বৃন্দাবনের সমস্ত মন্দিরের পুরোহিতরা পাশে আছে বলে জানিয়েছেন তারা।

শ্রীকৃষ্ণ সেবা জন্মস্থান সেবা সংস্থানের তরফে জানানো হয়েছে, শুধু সেবায়েত এবং পুরোহিতরাই চিনা দ্রব্য ব্যবহার করবেন না তা নয়। বৃন্দাবনের মানুষও শ্রীকৃষ্ণের জন্মদিন পালনে মেতে উঠবেন চিনা সামগ্রী ছাড়া। তারাও এই বছর কোনও চিনা সামগ্রী ব্যবহার করবেন না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সংস্থানের আবেদন, শুধু বৃন্দাবনবাসীই নয়, গোটা দেশের মানুষের উচিৎ চিনা সামগ্রী ছুঁড়ে ফেলে দেওয়া। আর এর মাধ্যমেই চিনকে কড়া বার্তা দেওয়া সম্ভব।

----
--