অমিতাভ-জয়ার ছবির নস্ট্যালজিয়ায় গা ভাসালো সাইবারবাসী

মুম্বই : দীর্ঘ ৪৫ বছর ধরে হাতে হাত রেখে প্রতিটি বাঁধা পেরিয়ে এসেছেন বলিউডের এই এভারগ্রিন জুটি৷ চার দশক আগে শুরু হয়েছিল তাঁদের এই পথ চলা৷ অমিতাভ-জয়া৷ সেই দুটি নাম একে অপরের সঙ্গে যেন ওতোপ্রতভাবে জড়িত৷ একজনের নাম নিলে আরেকজনের নাম নিতেই হয়৷ তাঁদের এই অটুট সম্পর্ক যেন আজও পর্যন্ত সকলের কাছে মিসাইলের মতো৷

‘অভিমান’ ছবিতে অমিতাভ-জয়ার রসায়ন দেখে এই প্রজন্মও ভাসে প্রেমের জোয়ারে৷ ‘জিসকি বিবি ছোটি উসকা ভি বড়া নাম হ্যায়’, অমিতাভ বচ্চনের ‘লাওয়ারিস’ ছবির সেই গান৷ রিলের দুনিয়ার সেই গান, অভিনেতার রিয়েল দুনিয়াতেও বেশ মানানসয়ী৷ ৩ জুন সেই লেজেন্ডারি জুটির বিবাহবার্ষিকীর ৪৫ বছর সম্পন্ন হয়েছে৷ দেশ-বিদেশে ছড়িয়ে থাকা অমিতাভ-জয়ার অসংখ্য ফ্যানেরা তাঁদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে৷

৩ জুন প্রতিবারের মতোই অনুরাগীদের শুভেচ্ছা বার্তায় ভরে উঠেছে অমিতাভ-জয়ার দিনটা৷ জয়া বচ্চনের কোনও সোশ্যাল অ্যাকাউন্ট না থাকায় তাঁর তরফ থেকেও ধন্যবাদ জানিয়েছেন অভিনেতা৷ পোস্টটিতে তাঁর এবং স্ত্রী জয়া একটি বহু পুরনো ছবিও শেয়ার করেছেন৷ ছবিটি ব্ল্যাক অ্যান্ড ওয়াইটে তোলা৷ স্টেজের ওপর জয়া বচ্চনের হাতে একটি গোলাপ তুলে দিচ্ছেন বিগ বি৷ ট্যুইট করে লিখেছেন, “যাঁরা আমায় এবং জয়াকে আমাদের বিবাহ বার্ষিকীতে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তাঁদের সকলকে অসংখ্য ধন্যবাদ৷ স্নেহ ও আদর জানাচ্ছি সকল অনুরাগীদের৷” তাঁদের ছবিটি দেখে নস্ট্যালজিয়ায় গা ভাসিয়েছে অগণিত মানুষ৷ এই ট্যুইটের কমেন্টবক্সেও অনেকে বিলেটেড অ্যানিভারসারির শুভেচ্ছা জানিয়েছেন৷

নিজের একটি পার্সোনাল ব্লগেও ভক্তদের এবং হিতাকাঙ্ক্ষীদের জন্য আলাদা করে নিজের অনুভূতি প্রকাশ করেছেন৷ সেখানে তিনি লিখেছেন, “আপনারা সকলে মন থেকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আমাদের বিবাহ জয়ন্তীতে৷ তার জন্য আমি নিজেকে ধন্য মনে করি৷ আপনাদের অভিনন্দন জানাবার মতো ভাষা আমার কাছে নেই৷ শুধু এইটুকুই বলতে চাই আপনারাই এই পরিবারকে বানিয়েছেন৷ আপনাদের সকলকে মন থেকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি৷”

সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁদের উইশ করা ছাডা়ও তাঁদের বাড়িতেও একের পর এক ফুলের তোড়া, উপহার পাঠিয়েছেন ভক্তরা৷ অভিষেক বচ্চনও ‘অভিমান’ ছবির একটি স্টিল শেয়ার করে ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করে অভিনন্দন জানিয়েছেন৷

সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটের দৌলতে সেই প্রত্যেক শুভাকাঙ্ক্ষীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ‘শাহেনশা’৷ বিগ বি যে সোশ্যাল মিডিয়ায় কতটা অ্যাক্টিভ তা তাঁর ফ্যানেরা জানেন৷ নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে নিত্যদিনই কোনও না কোনও আপডেট তিনি দিতে থাকেন৷ ফিল্মি দুনিয়ার মানুষ বলে যে কেবল সিনেমার জগতকে কেন্দ্র করেই নানা রকমের পোস্ট করে যান তা নয়৷ কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স অর্থাৎ রোজ কোথায় কী ঘটছে সে নিয়েও তিনি তাঁর বক্তব্য পেশ করেন নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেলে৷

Advertisement
----
-----