#Amritsar: বড় পদক্ষেপ, দুর্ঘটনায় অনাথ হয়ে যাওয়া শিশুদের দায়িত্ব নিলেন সিধু

অমৃতসর: দশেরার রাতে অমৃতসরে ঘটে যাওয়া ভয়াবহ দুর্ঘটনায় যখন দোষী খোঁজার পালা অব্যাহত, তার মাঝেই সোমবার এক সংবাদিক সম্মেলনে নভজ্যোত সিং সিধু ঘোষমা করেন, অনাথ হয়ে যাওয়া শিশুদের দায়িত্ব নেবেন তিনি৷

এই ট্রেন দুর্ঘটনায় যে সব পরিবার তার একমাত্র উপার্জনকারী সদস্যকে হারিয়েছে, সেইসব পরিবারের দায়িত্বও তাঁর৷ তাই সিধু স্পষ্ট জানান, তিনি অমৃতসর থেকে নির্বাচনে দাঁড়াবেন বলে যেমন স্থির করেছিলেন তেমনই আরও একটা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হলেন, আর তা হল এই দুর্ঘটনায় অনাথ হয়ে যাওয়া শিশুদের দায়িত্ব নেবেন তিনি৷

তিনি আরও জানান, তদন্ত নয়, ক্লিনচিট দেওয়াতেই বেশি জোর দিয়ে ফেলেছে রেল৷ সিধুর পাশাপাশি পঞ্জাব কংগ্রেসের সুনীল জাখড় অভিযোগ করেন, সমস্ত তথ্যপ্রমাণ নষ্ট করে দেওয়া হয়েছে৷ ২০০ মিটার দূরে যেখানে দশেরা পালিত হচ্ছিল সেখানে কেন গেটম্যান ছিল না কোনওয় ১০ মিনিট আগে একটি ট্রেন ধীরগতিতে সেখান থেকে বেরিয় যেতে পারলে, দ্বিতীয় ট্রেনটি কেন তা পারেনি? চালক তাড়াহুড়ো কেন করেছিল? এত স্পীড কেন তুলেছিল ট্রেনের? এমারজেন্সি ব্রেকেও ট্রেন কেন থামলো না?

প্রসঙ্গত, শুক্রবার সন্ধ্যায় অমৃতসরের কাছে ঘটে যায় এক ভয়াবহ রেল দুর্ঘটনা। দশেরার অনুষ্ঠান চলাকালীন রেল লাইনের উপরে দাঁড়িয়েছিলেন অনেক দর্শক। সেখান থেকেই দেখছিলেন রাবণ বধ। সেই সময় চলে আসে ট্রেন। ভিড়ের উপর দিয়েই চলে যায় ছুটন্ত ট্রেন। আর তাতেই ছিন্নভিন্ন হয়ে যায় বহু মানুষ।

অনেকেই ট্রেনের নিচে পড়ে যান। ধাক্কা লাগে রেল লাইনের আশেপাশে থাকা লোকেদের গায়েও। প্রায় ৫০ থেকে ১০০ মিটার দূরে অনেকের দেহ ছিটকে পড়েছিল বলে জানান প্রত্যক্ষদর্শীরা।

এই ঘটনায় রেল দফতরকে কাঠগড়ায় তোলেন পঞ্জাবের মন্ত্রী তথা প্রাক্তন ক্রিকেটার নভজ্যোত সিং সিধু। ওই দশেরার অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তাঁর স্ত্রী-ও। দুর্ঘটনার সময় তিনি মঞ্চে থাকলেও কিছুক্ষণ পরেই ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

শনিবার সকালে ওই দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিদের দেখতে অমৃতসর সিভিল হাসপাতালে যান সিধু। সমগ্র ঘটনাকে দুর্ভাগ্যজনক বলে তিনি জানান যে এটি একটি অনিচ্ছাকৃত দুর্ঘটনা। একই সঙ্গে তিনি আরও বলেন, “খুব অল্প সময়ের মধ্যেই সমগ্র ঘটনাটি ঘটে গিয়েছে। আচমকা দ্রুত গতিতে ট্রেন চলে আসায় দর্শকেরা নিজেদের সামাল দিতে পারেনি।” রেলকে আক্রমণ করে তিনি আরও বলেছেন, “ঘটনাস্থলে আসার আগে ট্রেনের চালক হর্ন বাজায়নি। মুখ্যমন্ত্রী সমগ্র ঘটনা তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন।”

----
-----