কলকাতা: নাটকীয় পট পরিবর্তন মোহনবাগান নির্বাচনে৷ বেশ কয়েক মাস ধরে চলা উত্তপ্ত গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব থেকে এক লহমায় বন্ধুত্বপূর্ণ বাতাবরণে ফিরল বাগান তাঁবু৷

আরও পড়ুন: লিগ চ্যাম্পিয়ন মোহনবাগান

দীর্ঘ আট বছর পর কলকাতা লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার থেকেও বেশি করে আলেচনায় ছিল মোহনবাগানের দুই বন্ধু টুটু বসু ও অঞ্জন মিত্রের দ্বিপাক্ষিক লড়াই৷ প্রস্তুত ছিল লড়াইয়ের মঞ্চ৷ তবে সম্মুখ সমরে নামার আগেই রণে ভঙ্গ দিলেন অঞ্জন মিত্র৷ ফলে বাগান রাজনীতির গনগনে আঁচে জল পড়ে গেল হঠাৎই৷

আগামী ২৮ অক্টোবর মোহনবাগানের নির্বাচন৷ বুধবারই ছিল মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন৷ বিবাদমান দুই গোষ্ঠীর অন্য সব পদের প্রার্থীদের নিয়ে বিশেষ মাথা ব্যথা নেই কারও৷ সবার নজর ছিল সচিব পদে অঞ্জনে বিরুদ্ধে টুটু বসুর লড়াইয়ে৷ সেই লড়াই আবশ্য আর হচ্ছে না৷ শান্তির বার্তা নিয়ে শেষ মুহূর্তে মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করে নেন অঞ্জন৷ সুতরাং নির্বাচনে টুটু বসুর জয় নিয়ে আর সংশয় রইল না৷

আরও পড়ুন: টুটুর মন্তব্যে হারল ‘মোহনবাগানের মেয়ে’

একা অঞ্জনই নন, নির্বাচন থেকে নাম তুলে নিয়েছেন হকি সচিবের পদে মনোনয়ন জমা দেওয়া শৈলেন ঘোষ ও এক্সিকিউটিভ কমিটির সদস্য শুভাশিস পাল৷ অন্য প্রার্থীরা যথারীতি লড়াইয়ের ময়দানে থাকলেও পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে টুটু গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে তাদের জয়ের সম্ভাবনা ক্ষীণ হয়ে গেল৷

বাগান সচিবের লড়াই থেকে সরে দাঁড়ানোর প্রকৃত কারণ না জানা গেলেও টুটু বসুর সঙ্গে দীর্ঘদিনের বন্ধুত্ব বজায় রাখার লক্ষ্যেই অঞ্জন মিত্র নাম প্রত্যাহার করেছেন বলে শোনা যাচ্ছে৷ এখন দেখার যে ভোটের ময়দানে পারস্পরিক লড়াই থেকে সরে এলেও টুটু-অঞ্জনের বন্ধুত্বের ভাঙা সম্পর্ক জোড়া লাগে কি না৷

--
----
--