চিন্নাস্বামীর গ্যালারি থেকে আবার বিরাটদের হার দেখলেন অনুষ্কা

বেঙ্গালুরু: ভারতীয় ক্রিকেটমহলে একটা ধারণা ক্রমশ বদ্ধমূল হচ্ছে যে, অনুষ্কা শর্মা গ্যালারিতে উপস্থিত থাকলে নিশ্চিত জেতা ম্যাচও হারবে কোহলি অ্যান্ড কোং৷ তা সে কোহলি যতই ব্যাট হাতে বিরাট ইনিংস খেলুন না কেন, দলগত সাফল্য অধরা থেকে যাবে৷

এমনটা নয় যে, কোহলিকে যাঁরা পছন্দ করেন না, তাঁরা এমনটা রটিয়ে বেড়াচ্ছেন৷ বরং আরসিবি’র বিরাট অনুরাগীরাই ক্ষুব্ধ ভারতীয় ক্রিকেটের ফার্স্ট লেডির উপর৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের বিরক্তি প্রকাশ করে কেউ কেউ সরাসরি কাঠগড়ায় তুলতে শুরু করেছেন অনুষ্কাকে৷ তাঁদের দাবি, অভিনেত্রী হিসাবে তাঁরা শ্রদ্ধা করেন অনুষ্কাকে৷ তবে কোহলি তথা আরসিবির ক্ষেত্রে তিনি একজন অপয়া৷ তাই সোশ্যাল মিডিয়ায় অনুষ্কাকে চিন্নাস্বামীর গ্যালারিতে না আসার অনুরোধও জানানো হয়েছিল৷

অনুষ্কা অবশ্য নিন্দুকদের বাজে কথায় বিন্দু মাত্র কান দেননি৷ যদিও তাতে ফলাফল মোটেও ইতিবাচক হয়নি রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্সের৷ ক’দিন আগে চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে আরসিবির ম্যাচে চিন্নাস্বামীতে এসেছিলেন অনুষ্কা, সেই ম্যাচেও হার মানতে হয়েছিল ব্যঙ্গালোরকে৷ এবার কলকাতার বিরুদ্ধেও স্বামীর হয়ে গলা ফাটাতে বেঙ্গালুরুতে হাজির হয়েছিলেন তিনি৷ নিন্দুকদের হাতিয়ার শাণিত করে আরসিবি আবার মাথা নত করে নাইটদের সামনে৷

- Advertisement -

এমন নেতীবাচক পরম্পরা চলে আসছে ২০১৪ ইংল্যান্ড সফর থেকে৷ ২০১৫ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে হারের জন্যও দায়ি করা হয় অনুষ্কাকে৷ যার তীব্র প্রতিবাদ করেছিলেন কোহলি নিজে৷ স্পষ্ট জানিয়েছিলেন যে, তাঁর এবং দলের ব্যর্থতার জন্য অনুষ্কাকে দায়ি করা মোটেও ঠিক নয়৷ বিরুষ্কার চার হাত এক হওয়ার পরেও অপয়া তকমা ঘোচেনি বিরাট ঘরণীর৷ গত দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের শুরুতেই এমন গুঞ্জন ওঠার পর এবার আইপিএলে চলছে বিরাটের ‘পরি’র মুণ্ডপাত৷

চিন্নাস্বামীতে টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ব্যাঙ্গালোর ৪ উইকেটে ১৭৫ রান তোলে৷ বিরাট কোহলি ৪৪ বলে অপরাজিত ৬৮ রান করে অনুষ্কার উচ্ছ্বাসের কারণ হন বটে, তবে সেই উচ্ছ্বাস হতাশায় বদলে যেতে বিশেষ সময় লাগেনি৷ পাল্টা ব্যাট করতে নেমে কলকাতা ১৯.১ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ১৭৬ রান তুলে নেয়৷ ৫২ বলে অপরাজিত ৬২ রান করে ম্যাচের সেরা হন ক্রিস লিন৷

Advertisement
---