অর্জুন কাপুরকে ‘যৌন হেনস্থাকারী’ বলে সম্বোধন নেটিজেনের

মুম্বই : অর্জুন কাপুর এবং পরিনীতি চোপড়ার বন্ধুত্বের ছোঁয়া দর্শক তাঁদের ছবিতেও দেখতে পায়৷ ‘ইশকজাদে’ থেকে শুরু করে ‘নমস্তে ইংল্যান্ড’ অর্জুন-পরির রসায়ন যেন দিনে দিনে আরও মাখোমাখো হয়ে উঠেছে৷ আসন্ন ছবি ‘নমাস্তে ইংল্যান্ডে’র ট্রেলার মুক্তি পেতেই সকলে সেই ‘ইশকজাদে’র ছোঁয়া পেয়েছেন৷ ছবির রোম্যান্টির ট্র্যাক ‘তেরে লিয়ে’র মুক্তি জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও পোস্ট করেছিলেন পরিনীতি৷ যেখানে একে অপরকে জড়িয়ে ধরে রয়েছেন অর্জুন এবং পরিনীতি৷

ছবিটি স্বাভাবিক হলেও একজন নেটিজেন এতে যৌনতার গন্ধ পেয়েছেন৷ পরিনীতির পোস্টের কমেন্ট সেকশনে লিখেছেন, ‘আমার কী একারই মনে হচ্ছে যে ভিডিওতে অর্জুন কাপুরকে যৌন হেনস্থাকারীর মতো দেখতে লাগছে? নাকি সবাই তাই ভাবছে?’ এই মন্তব্যের পরই বিতর্ক সৃষ্টি হয় ট্যুইটারে৷ অর্জুন কাপুর প্রথমদিকে কমেন্টটি খেয়াল না করলেও পরে চোখে পড়েছে তাঁর৷ চোখে পড়তেই চুপ থাকেননি তিনি৷ সরাসরি উত্তর দিয়েছেন সেই ব্যক্তিকে৷ “এই ধরণের শব্দ যখন এত লাইটলি ব্যবহার করা হয়, তখনই বোঝা যায় যে মানুষের সাধারণ বিচার বিবেচনাও হারিয়ে গিয়েছে৷”

অর্জুনের এই কমেন্টের পরই সেই ব্যক্তির কমেন্টটিতে স্প্যাম রিপোর্ট করতেই কমেন্টটি ডিলিট করে দেওয়া হয়৷ সেই ব্যক্তির হয়ে অর্জুনের অসংখ্য ভক্তরা লিখেছেন, “ওর হয়ে আমি ক্ষমা চাইছি৷ আপনি একদিক দিয়ে আমাদের জন্য সময় বের করে #AskArjun শুরু করছেন আর অন্যদিকে আপনাকে এ ধরণের কটূক্তির শিকার হতে হচ্ছে৷ আমার সত্যি খুব খারাপ লাগছে৷” আরেকজন লিখেছেন, “যে কেউ কিছু একটা লিখে দিলেই অর্জুন সেটা হয়ে যাবে না৷ কিন্তু যে লিখছে সে তার চরিত্রের পরিচয় দিচ্ছে৷”

- Advertisement -

এই কনভারসেশনের মাঝে হঠাৎ করে সেই ব্যক্তি এসে লিখতে শুরু করে, “এটা কী হচ্ছে? আমি একটু ঠাট্টা করছিলাম৷ কফি খেতে গিয়েছিলাম ওই ‘মোলেস্টার’ কমেন্টটা করে, তারই মধ্যে দেখছি আমার ট্যুইটারে একের পর এক বিস্ফোড়ন হচ্ছে৷ আমি শুধু অর্জুনের এক্সেপ্রেশনের কথা বলেছিবলাম৷ একটু মাথা ঠান্ডা করো সবাই৷ বহু অভিনেতা ভিলেনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন৷ তাই বলে কী তাঁদের বাস্তব জীবনে ভিলেন বলা হবে? না নিশ্চই৷ আজকাল সবাই খুব দ্রুত বিরক্ত হয়ে যায়৷”

Advertisement
---