এবার চরবৃত্তির অভিযোগে গ্রেফতার ভারতীয় জওয়ান

মেরঠ: কয়েকদিন আগে ব্রহ্মোস মিসাইলের তথ্য শক্রদেশের হাতে পাচার করার অভিযোগে এক ইঞ্জিনিয়ারকে গ্রেফতার করেছিল জঙ্গি দমন শাখা৷ তার রেশ কাটতে না কাটতেই আরও এক সর্ষের মধ্যে থেকে ভূত বের হল৷ এবার চরবৃত্তির অভিযোগে গ্রেফতার ভারতীয় জওয়ান৷ বুধবার তাঁকে মেরঠ ক্যান্টনমেন্ট থেকে গ্রেফতার করা হয়৷ অভিযোগ, সেখান থেকে গুরুত্বপূর্ণ সামরিক তথ্য পাচার করত সে৷

আরও পড়ুন: সিপিএমের সরকার বলছে ‘শবরীমালা সবার’, বিজেপির মিছিলে মন্দিরে ‘মহিলা হঠাও’

এখনও অবধি সেই জওয়ানের নাম পরিচয় প্রকাশ্যে আনা হয়নি৷ তবে জানা গিয়েছে, ধৃত জওয়ান আর্মি সিগন্যাল রেজিমেন্টের সঙ্গে যুক্ত৷ তাঁকে গ্রেফতারের পর এখন জেরা করা হচ্ছে৷ জানার চেষ্টা চলছে আরও কেউ এই চরবৃত্তির ঘটনার সঙ্গে জড়িত কিনা৷

৮ অক্টোবর বহ্মোসের ইউনিট থেকে ধরা পড়ে আইএসআই চর নিশান্ত আগরওয়াল৷ মহারাষ্ট্রের নাগপুরের ব্রহ্মোস মিসাইলের ইউনিট থেকে গ্রেফতার করা হয়। গত চার বছর ধরে ব্রহ্মোস ইউনিটে কাজ করছিল এই ব্যক্তি। দিনের পর দিন ভারতের প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত তথ্য পাকিস্তানের কাছে পাচার করার অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে। অফিশিয়াল সিক্রেট অ্যাক্টের আওতায় তাকে গ্রেফতার করে মহারাষ্ট্রের অ্যান্টি-টেররিস্ট স্কোয়াড। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

গত মাসে উত্তরপ্রদেশে একই অভিযোগে এক বিএসএফ জওয়ানকেও গ্রেফতার করে অ্যান্টি টেররিস্ট স্কোয়াড। নয়ডার ওই জওয়ানের বিরুদ্ধেও পাকিস্তানের হাতে তথ্য তুলে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। মধ্যপ্রদেশের রেওয়া জেলার বাসিন্দা অচ্যুতানন্দ মিশ্রকে হানিট্র্যাপে ফেলে অনেক তথ্য হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছিল বলে অভিযোগ। ডিফেন্স রিপোর্টার হিসেবে এক মহিলা হানিট্র্যাপে ফেলেছিল ওই জওয়ানকে।

----
-----