মাংস বিতর্কে গ্রেফতার তিন

পূর্ব বর্ধমান: ভাগাড়কাণ্ডের পরও টনক নড়েনি৷ সোমবার রাতেই বর্ধমান পুরসভার নিচের মার্কেটে পাওয়া গিয়েছিল প্যাকেট করা মেয়াদ উত্তীর্ণ মুরগির মাংস৷ ফের মঙ্গলবার দুপুরে বর্ধমান থানার পুলিশ হানা দিয়ে উদ্ধার করল প্রচুর মেয়াদ উত্তীর্ণ প্যাকেট করা মুরগির মাংস। এই ঘটনাকে ঘিরে নতুন করে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে শহর জুড়ে৷

 

- Advertisement -

বর্ধমান শহরের রবীন্দ্রপল্লীর বাসিন্দা দেবব্রত চৌধুরি সোমবার পুরসভার নিচে একটি বেসরকারি বিপণি থেকে প্যাকেটজাত মুরগীর মাংস (লেগ পিস) কেনেন। এরপরই তিনি লক্ষ্য করেন প্যাকেটের গায়ে কোনও ম্যানুফ্যাকচারিং ডেট বা এক্সপায়ার ডেটের উল্লেখ নেই৷

তিনি দোকানের কর্মীদের এই বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে তাঁরা বিষয়টি এড়িয়ে যায়। তিনি বর্ধমান থানায় অভিযোগ করেন। এরপর মঙ্গলবার দুপুরে বর্ধমান থানার পুলিশ ওই কাউন্টারে হানা দেন। বাজেয়াপ্ত করে প্রচুর পরিমাণে মেয়াদ উত্তীর্ণ প্যাকেটজাত মাংস। এই ঘটনায় পুলিশ এখনও পর্যন্ত তিনজনকে গ্রেফতার করেছে৷

যদিও ওই কাউন্টারের দায়িত্বে থাকা ম্যানেজার প্রদীপ দাস জানিয়েছেন, এই ঘটনার পিছনে কোনও কর্মীই দায়ী৷ কারণ তাঁদের কোম্পানি কোনও বাজে মাংস বিক্রি করে না। উদ্দেশ্যপ্রণোদীতভাবে কেউ প্যাকেটের গায়ে মেয়াদের তারিখ তুলে দেওয়াতেই এই বিপত্তি।

 

Advertisement ---
---
-----