ক্যানিং থেকে গ্রেফতার তিন অস্ত্র কারবারী

প্রতীকী ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, দক্ষিণ ২৪ পরগনা ও মুর্শিদাবাদ: দুই জেলায় পাঁচ অস্ত্র কারবারী গ্রেফতার৷ তিন অস্ত্র কারবারীকে গ্রেফতার করল দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিং থানার পুলিশ৷ অন্যদিকে আরও দু’জনকে গ্রেফতার করে মুর্শিদাবাদের সামসেরগঞ্জ থানার পুলিশ৷ দু’টি অভিযানই চলেছে বৃহস্পতিবার রাতে৷

ক্যানিংয়ে মাতলার ব্রিজ থেকে গ্রেফতার করা হয় তাদের৷ বিশেষ সূত্রে খবর পেয়ে এদিন রাতে বারুইপুর স্পেশাল অপারেশনস গ্রুপ (এসওজি) ও ক্যানিং থানার পুলিশ অভিযান চালায়৷ ধৃতদের নাম আনোয়ার মেহেবুব মণ্ডল ওরফে বাপ্পা (২৮), রুবেল মণ্ডল (১৮), ঝণ্টু পাল (১৮)৷ তিনজনই মুর্শিদাবাদ জেলার জলঙ্গি থানা এলাকার বাসিন্দা৷ ধৃতদের কাছ থেকে ১২টি ওয়ান শটার পাইপগান-সহ বেশ কয়েকটি বিস্ফোরক উদ্ধার করে পুলিশ৷ আটক করা হয়েছে একটি মারুতি ভ্যান৷

আরও পড়ুন: নেতাজির হাতেই ভেঙেছিল দুর্গার সংসার

- Advertisement -

প্রাথমিক জেরায় পুলিশ জানতে পেরেছে এই অস্ত্র ও পাইপগানগুলি বাসন্তী থানা এলাকায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল৷ কিন্তু কেন এগুলি সেখানে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে৷ বিশেষ কোনও উদ্দেশ্যেই এই অস্ত্রসম্ভার সেখানে পাঠানো হচ্ছিল নাকি এর পিছনে অন্য কোনও কারণ রয়েছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ৷

মুর্শিদাবাদ জেলার জলঙ্গি থানা এলাকার বাসিন্দা৷ ধৃতদের কাছ থেকে ১২টি ওয়ান শটার পাইপগান-সহ বেশ কয়েকটি বিস্ফোরক উদ্ধার করে পুলিশ৷ আটক করা হয়েছে একটি মারুতি ভ্যান৷

আরও পড়ুন: হিন্দু স্ত্রী নিবেদিতার শ্রাদ্ধে স্বামী ইমতিয়াজকে বাধা কালীমন্দিরের

প্রাথমিক জেরায় পুলিশ জানতে পেরেছে এই অস্ত্র ও পাইপগানগুলি বাসন্তী থানা এলাকায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল৷ কিন্তু কেন এগুলি সেখানে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে৷ বিশেষ কোনও উদ্দেশ্যেই এই অস্ত্রসম্ভার সেখানে পাঠানো হচ্ছিল নাকি এর পিছনে অন্য কোনও কারণ রয়েছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ৷

অন্যদিকে, এদিন রাতে সামসেরগঞ্জ থানার পুলিশ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বেআইনি আগ্নেয়াস্ত্র-সহ গ্রেফতার করে দু’জনকে৷ শুক্রবার বহরমপুরে সাংবাদিক বৈঠকে পুলিশসুপার মুকেশ জানান, মালদহ জেলার কালিয়াচকে বাসিন্দা আলেমুল হক ও বাহিদ মোমিন নামে দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷

আরও পড়ুন: শিশুদের যৌন নির্যাতনে অভিযুক্ত বৌদ্ধ সন্ন্যাসীর ১১৪বছরের সাজা

ধৃতদের কাছ থেকে সাতটি ৭.৬ এমএম পিস্তল, ১০রাউন্ড গুলি, ৩টে ওয়ান শটার ও ১৪টি ম্যাগজিন উদ্ধার করা হয়েছে। ধৃতদের আজ শুক্রবার আদালতে তোলা হবে এবং পুলিশ হেফাজতে নেওয়ার জন্য আবেদন জানানো হবে৷ সামসেরগঞ্জের একটি গ্রামে এই অস্ত্র নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল৷

কালিয়াচক থেকে সেগুলি নিয়ে আসা হয়েছিল বলে জানান পুলিশসুপার৷ তিনি জানান, এ বছর মুর্শিদাবাদে প্রায় ৩৪টি জায়গায় অভিযান চালিয়ে মোট ১৮৭টি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ৷ ২২৫জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷

Advertisement ---
---
-----