ধৃত বাংলাদেশীকে জেল হেফাজতের নির্দেশ বারাকপুর মহকুমা আদালতের

স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: কার্তুজ সহ ধৃত বাংলাদেশীকে মঙ্গলবার জেল হেফাজতের নির্দেশ দিল বারাকপুর মহকুমা আদালত৷ ধৃতের নাম মহম্মদ গোলাম হায়দার৷ তাকে উত্তর ২৪ পরগনার বারাকপুর মহকুমা আদালতে এসিজেএম বিচারক রফিক আলমের এজলাসে পেশ করে দমদম বিমানবন্দর থানার পুলিশ৷ বিচারক পুরো ঘটনার বিবরণ শুনে অভিযুক্তকে সাত দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন৷ পাশপাশি আগামি সাত দিনের মধ্যে বিমানবন্দর থানার পুলিশকে এই ঘটনার সিডি বারাকপুর আদালতে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন।

প্রসঙ্গত, ৫ অগাষ্ট মহম্মদ গোলাম হায়দার মেডিক্যাল ভিসা নিয়ে নিজের স্ত্রী ও একজন ব্যক্তিগত কর্মচারীকে নিয়ে কলকাতায় এসেছিলেন৷ শারীরিক অসুস্থতার কারণে তিনি আরএন টেগর হাসপাতালে চিকিৎসারত ছিলেন৷ সোমবার বাংলাদেশে ফিরে যাওয়ার কথা ছিল তাদের৷ কলকাতা বিমানবন্দরে সুরক্ষা জনিত কারণে তার ব্যগ চেক করা হচ্ছিল৷

আরও পড়ুন: ভিন ধর্মে প্রেম, মেয়েকে খুন করল বাবা, দাদা

- Advertisement -

সেই সময় বেশ কয়েকটি সন্দেহজনক বস্তু ধরা পড়ে মেশিনে। এরপরই ব্যাগ খুলে তল্লাশি করা হয়৷ তার ব্যগ থেকে ৩৬ রাউন্ড তাজা কার্তুজ উদ্ধার হয়৷ বিমানবন্দরে গুলি বহন করার নির্দিষ্ট নিয়মকানুন রয়েছে। সেই নিয়ম মোতাবেক গুলি নিয়ে যেতে হলে আগে থেকে সেটি উল্লেখ করতে হয়৷ পাশাপাশি জানাতে হয় বিমানবন্দরের আধিকারিকদের।

কী উদ্দেশ্যে তিনি গুলি নিয়ে যাচ্ছেন এবং লাইসেন্স প্রাপ্ত বন্দুকের সংশ্লিষ্ট বিবরণ দিতে হয় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষকে। এই ক্ষেত্রে তা না করায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়৷ জিজ্ঞাসাবাদে তার বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে লাইসেন্স সংক্রান্ত কোনও কাগজ না দেখাতে পারায় এনএসসিবিআই থানার পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। মঙ্গলবার তাকে বারাকপুর আদালতে তোলা হয়। বিষয়টি লিখিতভাবে জানানো হয়েছে আইবি ওয়েস্ট বেঙ্গল এবং কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা প্রধানকেও।

Advertisement
---