সিসিটিভি ফুটেজই ধরিয়ে দিল ‘চোর’

স্টাফ রিপোর্টার,কলকাতা: সিসিটিভি ফুটেজ দেখে দু’দিনের মধ্যেই দুই দাগি চোরকে গ্রেফতার করল সার্ভে পার্ক থানার পুলিশ৷ উদ্ধার চুরি যাওয়া নগদ টাকা, এটিএম কার্ড, মোবাইল ফোন সহ প্রায় দেড় লক্ষ টাকার সোনার গয়না।

দক্ষিণ কলকাতার ফ্রেন্ডস রো-র বাসিন্দা জয়ন্তী বেরা  ২০ই জুলাই রাতে সার্ভে পার্ক থানায় চুরির অভিযোগ দায়ের করেন৷ তদন্তে নামে পুলিশ৷ তদন্তে নেমে পুলিশ অফিসারেরা জানতে পারেন, বিকেল পৌনে পাঁচটা থেকে সন্ধে ছটার মধ্যে চুরির ঘটনা ঘটে কারন জয়ন্তী বেরা এবং তাঁর মেয়ে চোরকে পালাতে দেখেছেন। কিন্তু মুখ চিনতে পারেনি। এরপর লালবাজারের গোয়েন্দা দপ্তরের কন্সটেবল শঙ্কর বসু পাণ্ডে তাদের বর্ণনা অনুযায়ী অপরাধীর প্রতিকৃতি আঁকেন৷ সেই প্রতিকৃতির কপি ছড়িয়ে দেওয়া হয় সোর্সদের মধ্যে।

আরও পড়ুন: ‘মোদীকে আলিঙ্গন করে বাকরুদ্ধ করে দিয়েছেন রাহুল’

- Advertisement DFP -

পুলিশ জানিয়েছে, তদন্তে নেমে জয়ন্তী বেরার বাড়ির বাইরের ও আশেপাশের এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ হাতে চলে আসে তদন্তকারী অফিসারদের। সেখানে অজ্ঞাতপরিচয় একজনকে ওই বাড়ি থেকে পালাতে দেখা যায়। অফিসারেরা লক্ষ্য করেন, চোর খানিক খুঁড়িয়ে হাঁটছে। তার ডান পায়ে কিছু সমস্যা রয়েছে। সার্ভে পার্ক থানার অফিসারেরা দ্রুত যোগাযোগ করেন লালবাজারের অ্যান্টি বার্গলারি স্কোয়াডের সঙ্গে। ডান পায়ে সমস্যা আছে এমন কোনও অপরাধীর সন্ধান তাদের কাছে আছে কিনা৷

লালবাজারের অ্যান্টি বার্গলারি স্কোয়াডের অফিসারেরা সার্ভে পার্ক থানার অফিসারদের শোনান সুরজিত অধিকারী ওরফে ‘ল্যাংড়া গৌতম’ নামের এক দাগি চোরের কথা। খোঁজ শুরু হয় অভিযুক্তদের। ফল মেলে দ্রুতই। রবিবার সন্ধায় পঞ্চসায়র থানার পুলিশের সহযোগিতায় সুরজিৎ অধিকারী ওরফে ল্যাংড়া গৌতমকে গ্রেফপ্তার করে সার্ভে পার্ক  থানার পুলিশ৷ গ্রেফপ্তার করা হয় গৌতমের শাগরেদ দিবস দে ওরফে দীপককে৷

আরও পড়ুন: নতুন স্কলারশিপ চালু করছে আইআইটি খড়গপুর

Advertisement
----
-----