জেটলির সঙ্গে মালিয়ার দেখা হয়েছিল ঠিকই! তবে…

নয়াদিল্লি: বিদেশের মাটিতে বসে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন লিকার ব্যারন বিজয় মালিয়া। তিনি নাকি দেশ ছাড়ার আগে অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির সঙ্গে দেখা করেছিলেন। স্বাভাবিকভাবেই মালিয়ার এই মন্তব্যে চাপ বেড়েছে মোদী সরকারের। মালিয়ার মন্তব্যের কিছুক্ষণের মধ্যেই তাই পাল্টা জবাব দিলেন অর্থমন্ত্রী। জানালেন, এই দাবি সম্পূর্ণ মিথ্যা। তবে তাঁকে যে মালিয়া সেটলমেন্ট বা সমঝোতা করতে বলেছিলেন, সে কথা কার্যত মেনে নিয়েছেন মোদী সরকারে এই মন্ত্রী।

ন’ হাজার কোটি টাকা ঋণখেলাপে অভিযুক্ত মালিয়া বুধবার বলেছেন, দেশ ছাড়ার আগে অরুণ জেটলির সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি৷ কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে সব কিছু মিটমাট করে নিতে চেয়েছিলেন মালিয়া৷ লন্ডনে আদালতের বাইরে সাংবাদিকদের এমনটাই জানিয়েছেন তিনি৷

এই মন্তব্য প্রকাশ্যে আসার কিছুক্ষণ পরই অরুণ জেটলি ফেসবুক পোস্টে মালিয়ার দাবি উড়িয়ে দেন। তিনি লিখেছেন, ”এই বক্তব্য একেবারে মিথ্যা। ২০১৪ থেকে আমি কখনও ওনাকে অ্যাপয়েন্টমেন্ট দিইনি, তাই দেখা হওয়ার কোনও প্রশ্নই ওঠে না।” জেটলি আরও জানিয়েছেন, যেহেতু মালিয়া রাজ্যসভার সদস্য ছিলেন, তাই একদিন জেটলির নিজের ঘরের দিকে হেঁটে যাওয়ার সুযোগে এগিয়ে এসেছিলেন মালিয়া। জেটলির উদ্দেশে তিনি বলেছিলেন, ”আমি সেটলমেন্ট করতে চাই।” তবে কথা এগোননি জেটলি। তিনি বলেছিলেন, ”আমার সঙ্গে কথা বলে কোনও লাভ নেই। ব্যাংকের সঙ্গে কথা বলতে হবে।”

- Advertisement -

মালিয়া এদিন সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘দেশ ছাড়ার আগে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করি৷ মিটমাটের প্রস্তাব দিয়েছিলাম৷’’ পলাতক মালিয়ার এই মন্তব্যের পরই তোলপাড় জাতীয় রাজনীতি৷ হাতে এমন গরম ইস্যু পেয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে চেপে ধরে বিরোধীরা৷ এর আগে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীও দাবি করেছিল, দেশ ছাড়ার আগে বিজেপির একাধিক শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে দেখা করেছিলেন মালিয়া৷ এদিন মালিয়ার এই স্বীকারোক্তির পর রাহুলের সেই দাবি স্বীকৃতি পেল বলে জানিয়েছেন কংগ্রেস নেতারা৷

লন্ডনের আদালতে বিজয় মালিয়ার ভারতে প্রত্যার্পণ নিয়ে মামলা চলছে৷ মালিয়ার থাকার জন্য মুম্বইয়ের আর্থার জেলের একটি সেলকে ঢেলে সাজানো হয়েছে৷ মালিয়ার দাবি মেনে সেই পরিবর্তন করা হয়েছে৷ ভিডিও কনফারেন্স করে জেল কুঠুরির সেই ছবি দেখবে লন্ডন আদালত৷ সেই ভিডিও কনফারেন্সের পরই সিদ্ধান্ত নেবে আদালত৷ ৬২ বছর বয়সী প্রাক্তন কিংফিশার এয়ারলাইন্সের কর্ণধার মালিয়া প্রত্যার্পণ মামলায় জামিনেই আছেন৷

Arun Jaitley यांनी वर पोस्ट केले बुधवार, १२ सप्टेंबर, २०१८

Advertisement ---
---
-----