ফাইল ছবি

আসানসোলঃ  জাতীয় সড়ক ধরে গলসি, পানাগড় পর্যন্ত চাপা উত্তেজনার পরিবেশ৷ থমথমে অবস্থা৷ পূর্ব বর্ধমান ছাড়িয়ে পশ্চিম বর্ধমান জেলার খনি-শিল্পাঞ্চলের শুকনো গরম ধীরে ধীরে জানান দিচ্ছে৷ তার সঙ্গেই জুটছে গোষ্ঠী সংঘর্ষ পরবর্তী চাপা আতঙ্ক। আতঙ্কের মধ্যেই দফায় দফায় অশান্তি চলছে আসানসোলের রেলপাড়ে। যদিও ইতিমধ্যে এলাকায় জারি রয়েছে ১৪৪ ধারা। চলছে পুলিশের রুট মার্চ। গোষ্ঠী-সংঘর্ষ উত্তপ্ত এলাকায় তিন আইপিএসের নেতৃত্বে কলকাতা পুলিশের স্পেশাল ফোর্সকে পাঠানো হয়েছে।

অন্যদিকে, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন। ৩০ মার্চ দুপুর ২টো পর্যন্ত ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন পশ্চিম বর্ধমানের জেলাশাসক।

Advertisement

আসানসোল উত্তর থানা, আসানসোল দক্ষিণ থানা, জামুড়িয়া, রানিগঞ্জ, হীরাপুর ও কুলটি থানা এলাকায় ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয়, লোকাল কেবল নেটওয়ার্কগুলিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এমন কিছু খবর, ছবি ও স্পিচ না চালাতে যা শান্তি বিঘ্নিত করতে পারে। গত তিনদিন ধরে রানিগঞ্জ এবং আসানসোলে যে বিক্ষিপ্ত হিংসা, অশান্তি ছড়াচ্ছে তারজন্যই ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জেলা প্রশাসন। ইতিমধ্যে জারি হয়েছে সেই নোটিশ।

----
--