ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি : অন্তিম যাত্রার পথে ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী৷ তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোকে দেশ৷ শোকবার্তা আসছে বিভিন্ন দেশ থেকেও৷ নিজে তিন বারের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন৷ এছাড়াও ১৯৭৭ সালে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মোরারজী দেশাইয়ের বিদেশমন্ত্রী ছিলেন অটলবিহারী বাজপেয়ী৷ সেবছরই রাষ্ট্রসঙ্ঘে প্রথমবার হিন্দিতে বক্তব্য রেখে সাড়া ফেলে দিয়েছিলেন বাজপেয়ী৷

এরকম একজন ব্যক্তিত্বের জন্য চোখের জল ফেলছে প্রতিটি দেশ৷ আসছে একের পর এক শোকবার্তা৷ শোকবার্তা এসেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, রাশিয়া ও জাপান থেকে৷

Advertisement

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র : অটলবিহারী বাজপেয়ীর প্রয়াণে শোকবার্তা এল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে৷ বৃহস্পতিবার নিজের বার্তায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রসচিব মাইকেল পম্পেও বলেন, আমেরিকা বাসীর পক্ষ থেকে আন্তরিক সমবেদনা জানাই ভারতবাসীকে৷ প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী শ্রী অটবলবিহারী বাজপেয়ীর প্রয়াণে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র গভীরভাবে শোকাহত৷ দুই দেশের সম্পর্কের মানোন্নয়নে ইতিবাচক পদক্ষেপ নিয়েছিলেন বাজপেয়ীজি বলে জানিয়েছেন পম্পেও৷ তাঁর দূরদর্শীতার জন্যই আজ সুফল পাচ্ছে ভারত ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক৷

ব্রিটেন : নিজের শোকবার্তায় ভারতে ব্রিটেনের হাই কমিশনার ডোমিনিক অ্যাসকুয়িথ বলেন ব্রিটেন শোকাহত অটলজীর প্রয়াণে৷ ভারতের মহান নেতাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন তিনি৷ শ্রী বাজপেয়ী ব্রিটেনে একজন শ্রদ্ধার মানুষ ছিলেন৷ তিনি তাঁর জায়গায় থেকে যাবেন আজীবন৷ .

রাশিয়া: রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন নিজের ওয়েবসাইট অটলবিহারী বাজপেয়ীর প্রয়াণে শোকবার্তা প্রকাশ করেছেন৷ সেই শোকবার্তা এসে পৌঁছেছে ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে৷ শোকবার্তায় পুতিন লিখেছেন অটলজী একজন আদর্শ দেশনায়ক ছিলেন৷ সারা বিশ্বে তাঁর সুনাম ছিল৷ মানুষ তাঁর নাম শ্রদ্ধার সঙ্গে উচ্চারণ করতেন৷ একজন মহান নেতা ও সুবক্তা হিসেবে তাঁর খ্যাতি চিরকাল থাকবে৷

জাপান: ভারতে জাপানের রাষ্ট্রদূত কেনজি হিরামাতসু নিজের শোকবার্তায় বলেন, বর্তমানের নেতা ও রাজনীতিকদের কাছে অটলজী একজন উদাহরণ৷ জাপানের পক্ষ থেকে বার্তায় তিনি বলেন জাপানের মানুষ শোকাহত ভারতরত্ন অটলবিহারী বাজপেয়ীর প্রয়াণে৷ ভারত জাপানের সম্পর্কের উন্নতির শুরু হয়েছিল প্রধানমন্ত্রী বাজপয়ীর হাত ধরে৷

----
--