‘অটল’ স্কুল শিক্ষা অভিযানে কমেছে স্কুল ছুটের সংখ্যা

নয়াদিল্লি: ২০১৩ সালে ইউপিএ সরকার স্কুল ছুট নিয়ে একটি পরিসংখ্যান পেশ করে৷ তাতে বলা হয়, ২০০৯ সালে স্কুল ছুটের সংখ্যা ছিল ৮০ লক্ষ৷ মাত্র তিন বছরের মধ্যে সেই ড্রপ আউট পঞ্চাশ লক্ষ নিচে নেমে আসে৷ ২০১২ সালে স্কুল ড্রপ আউটের সংখ্যা তখন কমে হয় ৩০ লক্ষ৷ কোনও জাদু বলে নয়, সর্বশিক্ষা অভিযানকে হাতিয়ার করে এই সাফল্যের মুখ দেখে ইউপিএ সরকার৷ যা আসলে পূর্বতন এনডিএ আমলে চালু হওয়া এখনও অবধি অন্যতম সফলতম প্রকল্প বলে অভিমত রাজনৈতিক মহলের৷

আরও পড়ুন: বিকাশ পুরুষকে শ্রদ্ধা জানাতে গিয়েও সেলফিতে মশগুল জনতা

প্রাথমিক স্কুলগুলিতে পড়ুয়াদের উপস্থিতির হার বাড়াতে এবং ৬ থেকে ১৪ বছর পর্যন্ত প্রতিটি শিশুকে বিনামূল্যে ও বাধ্যতামূলক শিক্ষা দিতে পূর্বতন এনডিএ সরকারের আমলে চালু হয় সর্বশিক্ষা অভিযান৷ বলা ভালো সর্বশিক্ষা অভিযান প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ীর স্বপ্নের প্রজেক্ট ছিল৷ ২০০০-০১ সালে এই মিশনের সূচনা করেন বাজপেয়ী৷ সর্বশিক্ষা অভিযান চালুর শুরু থেকেই সাফল্যের মুখ দেখতে পায়৷

- Advertisement -

আরও পড়ুন: বাজপেয়ীর অন্তিমযাত্রায় হাঁটবেন মোদী

সরকারি হিসাবই বলছে, এই প্রকল্প চালুর চার বছরের মধ্যে প্রাথমিক বিভাগে পড়ুয়াদের নাম লেখানোর হার উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি পায়৷ কমতে শুরু করে ড্রপ আউটের সংখ্যা৷ সর্বশিক্ষা অভিযানের সরকারি ওয়েবসাইট থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী বর্তমানে ১৪.৫ লক্ষ প্রাথমিক স্কুলে ১৯.৬৭ কোটি পড়ুয়ার নাম নথিভুক্ত আছে৷ শিক্ষকের সংখ্যা ৬৬.২৭ লক্ষ৷

Advertisement ---
---
-----