পাক স্বাধীনতা দিবসের উপলক্ষে ভারতীয় গান গেয়ে বিতর্কে আতিফ

নিউ ইয়র্ক : ভারত-পাকিস্তান লড়াইয়ের মাঝেও আতিফ আসলাম দুই দেশেরই প্রিয়৷ তাঁর গানে দুই দেশের মধ্যে অজান্তে এক সংযোগ তৈরি হয়েছে৷ এবার নিজের দেশেই তোপের মুখে সেই আতিফ আসলাম৷ পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসে ভারতীয় গান গাওয়ার সাহস! এমনই প্রশ্নের মুখে তিনি।

পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে নিউ ইয়র্কে একটি অনুষ্ঠান হয়েছিল৷ সেখানে বিশেষ অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আতিফ আসলাম৷ নিজের পারফরমেন্সের শেষের দিকে আতিফ তাঁর গাওয়া বলিউডের গান গাইতে শুরু করেন৷ সেই সময় তেমন সমস্যা না হলেও বহু আতিফ-ভক্তরা অনুষ্ঠান ছেড়ে চলে যায়৷ আতিফের এমন আচরণ তাদের মোটেই পছন্দ হয়নি৷ তাদের দাবি, ভারতীয় সঙ্গীত গাওয়ায় আতিফের দেশাত্মবোধ নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ উঠেছে পাকিস্তানিদের মনে৷

সোশ্যাল মিডিয়ায় আতিফের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন অসংখ্য নেটিজেন৷ প্রত্যেকের ট্যুইটে একই কথা, পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসে ভারতীয় গান গাওয়া উচিত হয়নি তাঁর৷ যদিও আতিফের সমর্থনে এগিয়ে এসেছেন অন্যান্য শিল্পীরা৷ শফাকত আমানত আলি, আতিফকে সমর্থন করে বলেছেন, “কুচকাওয়াজে গাওয়া আতিফের গান নিয়ে আমার কোনও আপত্তি নেই৷ সঙ্গীত কখনও এ দেশের ও দেশের হয় না৷ সঙ্গীত কেবল সঙ্গীত৷ সঙ্গীত সকলের৷ আর শিল্পীদের মধ্যে কখনও দেশ, জাতি হিসেবে বিভেদ করা উচিত নয়৷ সব ধরণের গান গাওয়ার জন্যই আমরা সকলের এতো স্নেহ আর শ্রদ্ধা পাই৷”

- Advertisement -

ফিল্ম ক্রিটিক ওমেইর আলাভি জানিয়েছে, “পাকিস্তানিরা ভারতীয় ছবি দেখেন না? ভারতীয় ধারাবাহিকগুলি আমাদের চ্যানেলে সম্প্রচারিত হয় না?”

সোশ্যাল মিডিয়ায় আতিফের বিরুদ্ধে ট্রোলিংয়ের ঝড় ওঠার পর গায়ক নিজেই ট্যুইট করে এর জবাব দেন৷ “আমি আমার হেটারসদেরও সমানভাবে ভালোবাসি৷ সম্মান দেওয়া এবং রাখা দুটোই আল্লাহর কাজ৷ সুবজ ঝান্ডাই আমার পরিচয় আর আমার অনুরাগীরা জানে যে এই পরিচয়কে কীভাবে আমি সম্মান দিয়ে রাখি৷ আমি খুবই খুশি যে আমার ফ্যানেরা ফেক প্রপাগ্যান্ডার উত্তর দিতে জানে৷ আশা করছি নতুন পাকিস্তানে সবাই তাঁদের সম্মান দিতে শিখবে যাঁরা পাকিস্তানের নাম বিশ্বের দরবারে উঁচু করে রেখেছে৷”

Advertisement
---