রিয়ালকে উড়িয়ে সুপার কাপ চ্যাম্পিয়ন অ্যাটলেটিকো

সুপার কাপ চ্যাম্পিয়ন অ্যাটলেটিকো৷ ছবি-উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ টুইটার

তালিন (এস্তোনিয়া): চ্যাম্পিয়ন্স লিগজয়ী রিয়াল মাদ্রিদকে ৪-২ গোলে বিধ্বস্ত করে উয়েফা সুপার কাপ জিতল ইউরোপা লিগজয়ী অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ৷ সুপার কাপের মাদ্রিদ ডার্বিতে নায়ক উয়ে উদিত হন দিয়েগো কোস্তা৷ সুপার কাপের ইতিহাসে দ্রুততম গোলসহ রিয়ালের জালে দু’বার বল জড়ান স্প্যানিশ তারকা৷ অ্যাটলেটিকোর অপর গোল দু’টি আসে নিগুয়েজ ও কোকের পা থেকে৷ রিয়ালের হয়ে গোলের খাতা খোলেন বেঞ্জেমা৷ পেনাল্টি থেকে অপর গোলটি করেন রামোস৷

আরও পড়ুন: বার্সার কাছে হেরেও হৃদয় জিতল বেঙ্গালুরু

জিদান দায়িত্ব ছাড়ার পর নতুন কোচ লোপেতেগুইয়ের কোচিংয়ে এটিই ছিল রিয়ালের প্রথম প্রতিযোগীতামূলক ম্যাচ৷ প্রথম ম্যাচেই ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর অভাব টের পেলেন তিনি৷ সিআর সেভেন না থাকলেও লোপেতেগুই সম্ভাব্য পূর্ণ শক্তির দল নামিয়েছিলেন ম্যাচের শুরু থেকেই৷ বেল, বেঞ্জেমা, ইসকো, ক্যাসেমিরো, আসেনসিও, ক্রুজ, কার্ভাহাল, ভারানে, রামোস, মার্সেলো ও গোলপোস্টের নীচে নাভাসকে দিয়ে অ্যাটলেটিকোর মোকাবিলা করার পরিকল্পনা করেছিলেন রিয়াল কোচ৷

- Advertisement -

আরও পড়ুন: বর্ষসেরা গোলের তালিকায় রোনাল্ডোর বাইসাইকেল কিক

ম্যাচের মাঝে পরিবর্ত হিসাবে লোপেতেগুই মাঠে নামান মদ্রিচ, দানি, ভাজকোয়েজকে৷ অতিরিক্ত সময়ে মায়োরাল মাঠে নামেন ক্রুজের বদলে৷ এমন তারকা সমৃদ্ধ দল নিয়েও শেষ রক্ষা করতে পারেনি রিয়াল৷

ম্যাচের ৪৯ সেকেন্ডের মাথায় গডিনের পাস থেকে গোল করে অ্যাটলেটিকোকে এগিয়ে দেন দিয়েগো কোস্তা৷ ২৭ মিনিটে বেলের ক্রস থেকে গোল করে রিয়ালকে সমতায় ফেরান বেঞ্জেমা৷ প্রথমার্ধের খেলা ১-১ গোলের সমতায় শেষ হয়৷

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের মাস ঘুরতেই অবসর ক্রোট তারকার

দ্বিতীয়ার্ধে দু’দলই একটি করে গোল করে৷ ৬২ মিনিটে নিজেদের বক্সে ক্যাসেমিরোকে অবৈধভাবে আটকে হলুদ কার্ড দেখেন কোরেয়া৷ পেনাল্টি উপহার দেওয়া হয় রিয়ালকে৷ ৬৩ মিনিটে স্পট কিক থেকে গোল করতে ভুল করেননি রামোস৷ ৭৯ মিনিটে কোরেয়ার পাস থেকে ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় গোল করে অ্যাটলেটিকোকে সমতায় ফেরান কোস্তা৷

নির্ধারিত সময়ে ম্যাচ ২-২ গোলের সমতায় দাঁড়িয়ে থাকায় নিস্পত্তির জন্য তা অতিরিক্ত সময়ে গড়ায়৷ এক্সট্রা টাইমে জোড়া গোল করে বাজি মাৎ করে অ্যাটলেটিকো৷ ৯৮ মিনিটে থমাসের পাস থেকে গোল করেন নিগুয়েজ৷ ১০৪ মিনিটে ভিতোলের ক্রস থেকে গোল করেন কোকে৷

আরও পড়ুন: মান্দজুকিচের পর অবসর আরও এক বিশ্বকাপারের

রিয়ালকে হারানোর সুবাদে এই নিয়ে তৃতীয়বার উয়েফা সুপার কাপ চ্যাম্পিয়ন হয় অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ৷ এর আগে ২০১০ ও ২০১২ সালেও সুপার কাপ জিতেছিল অ্যাটলেটিকো৷

Advertisement
----
-----