স্টাফ রিপোর্টার: অটিজম টাউনশিপ তৈরি হতে চলেছে বাংলায়৷ পরিকল্পনামাফিক সবকিছু ঠিকঠাক এগোলে বিশ্বের দরবারে ইতিহাস তৈরি করবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার৷ বাংলা আরও একবার উজ্জ্বল হবে বিশ্বের দরবারে৷ অটিজম আক্রান্তদের জন্য আলাদা টাউনশিপের নজির ভারবর্ষে তো নেই-ই৷ গোটা বিশ্বের কোথাও এরকম কোনও টাউনশিপ নেই৷

উস্তির কাছে ডায়মন্ডহারবার রোডের শিরাকোলে ৫০ একর জমিতে এই বিশেষ টাউনশিপটি তৈরি হবে৷ পুর ও নগর উন্নয়ন নিগমের তরফে এই ঘোষণা করা হয়েছে৷ চতুর্থ বিশ্ব বঙ্গ বানিজ্য সম্মেলনে এই সিদ্ধান্ত হয়৷ মউ সাক্ষরও হয়ে গিয়েছে৷ ৩৯ হাজার কোটি টাকার বিনিয়োগ প্রস্তাবও এসেছে৷

আরও পড়ুন: বিজেপির সিদ্ধান্তে হাঁফ ছেড়ে বাঁচল উপত্যকা: আজাদ

দফতর সূত্রে খবর, টাউনশিপের মধ্যে হাসপাতালের পাশাপাশি থাকছে বসবাসের আবাসন, স্কুল, ডে-কেয়ার সেন্টার, কনফারেন্স হল৷ যেসব শিশুরা অটিজমের শিকার তারা বিভিন্ন রকম প্রশিক্ষণও নিতে পারবে এখানে৷ তাদের জন্য নয়া দিগন্ত খুলে দিতেই দক্ষিণ ২৪ পরগনায় এই বিশেষ টাউনশিপটি তৈরির কথা ভেবেছে রাজ্য সরকার৷

প্রকল্প বাস্তবায়নের দায়িত্বে থাকবে একটি বেসরকারি সংস্থা৷ ৬০০ কোটি টাকা বিনিয়োগে চার বছরের মধ্যে তৈরি হবে টাউনশিপটি৷ পরিকল্পনা রয়েছে এখানে একটি কলেজ তৈরিরও৷ যেখানে অটিজম নিয়ে বিভিন্ন গবেষণার কাজও করার সুযোগ পাওয়া যাবে৷

আরও পড়ুন: অনলাইনে টিকিট বুকিং করেন? তাহলে অবশ্যই পড়ুন

অটিজম মূলত নিউরো ডেভেলপমেন্ট ডিসঅর্ডার৷ অটিজমের কারণে একটি শিশুর মানসিক বিকাশ আটকে যায়৷ কিন্তু তাতে ভেঙে পড়ার মত কিছু নেই৷ কেন না এই অটিস্টিক শিশুরাই কিন্তু বিশেষ কোনও ক্ষেত্রে নিজেদের পারদর্শীতাও দেখায়৷ দেখা যায় কেউ খুব ভাল ছবি আঁকে৷ কারও বা শুনে শুনে মনে রাখার প্রবণতা অত্যন্ত প্রখর৷ কেউ হয়তো বিজ্ঞান বিষয়ে তুখড়৷ কারও বা চিন্তাশক্তি অত্যন্ত প্রখর৷

অটিজম আক্রান্ত শিশুদের সঠিক পরিচর্যায় বড় করলে অনেক দূর যেতে পারে৷ গত ১৮ জুন চলে গেল অটিস্টিক প্রাইড ডে৷ ঠিক তার আগের দিনই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইট করে জানিয়েছে শিরাকোলের এই বিশেষ উদ্যোগের কথা৷ বাংলায় এ রকম একটা প্রকল্প নিঃসন্দেহে অত্যন্ত প্রশংসনীয়, বলছেন নেটিজেনরা৷

আরও পড়ুন: বাঘ সিংহের প্রেমে চিড়িয়াখানাতেই কাটে সীতারাম-শিউপূজনদের ‘বন্য’ জীবন

----
--