ঢাকা: সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের আওয়ামি লিগ নেতাকে খুনের দায়ে ৯ জনকে ফাঁসির সাজা শোনালো আদালত৷ মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামীদের মধ্যে আছে প্রভাবশালীরা৷

২০১৭ সালের ১ ফেব্রুয়ারি নড়াইলে প্রকাশ্যে ছুরি মেরে খুন করা হয় আওয়ামি লিগের সংখ্যালঘু হিন্দু নেতা প্রভাস রায়কে৷ মৃত নেতার স্ত্রী টুটুল রানী রায় নয় জনের বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের করেন৷ সেই অভিযোগের ভিত্তিতে নড়াইল থানার এস আই ভবতোষ রায় নয় আসামীর বিরুদ্ধে তদন্ত চালিয়ে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করেন৷

প্রভাস রায় খুনের পিছনে আওয়ামি লিগের অন্তর্দন্দ্ব প্রকাশ্যে এসেছিল৷ স্থানীয় নির্বাচনে আওয়ামি লিগ বনাম আওয়ামি লিগেরই বিক্ষুব্ধ প্রার্থীর লড়াই ছড়িয়েছিল উত্তেজনা৷ সেই নির্বাচনে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হন বিক্ষুব্ধ প্রার্থী শহিদুর রহমান শহিদ৷ তার বিরুদ্ধে প্রচার চালিয়েছিলেন প্রভাস রায়৷

রবিবার মামলার রায়দান ঘিরে খুলনা আদালতে ছিল ভিড়৷ বিচারক এম এ রব হাওলাদার একে একে নয় আসামীকে মৃত্যুদণ্ডের সাজা শোনান৷ চরম সাজাপ্রাপ্ত আসামীদের মধ্যে আছে ভদ্রবিলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুর রহমান মিনা ওরফে শহিদ, এছাড়া বাকিদের নাম হল, ইলিয়াস মীনা, আসিকুর রহমান মিনা, রাসেল মিনা, হেদায়েত মোল্লা, ইয়াসিন মোল্লা, মামুন মিনা, বাশার মোল্লা ও রবিউল ইসলাম মোল্লা। রায় ঘোষণার পর আসামীর স্বজনরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। আর বাদী পক্ষ দ্রুত রায় বাস্তবায়নের দাবি জানান।

------------------------------------- ©Kolkata24x7 এই নিউজ পোর্টাল থেকে প্রতিবেদন নকল করা দন্ডনীয় অপরাধ৷ প্রতিবেদন ‘চুরি’ করা হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে -------------------------------------