নয়াদিল্লি: চলতি সপ্তাহের সোমবার থেকে গোষ্ঠী সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়েছে সীমান্ত লাগোয়া উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বিস্তীর্ণ এলাকা। দিন দুই পরে পরিস্থিতি কিছুটা আয়ত্তে এলেও তাকে স্বাভাবিক বলা যায় না। রাজ্যের এত বড় এলাকা জুড়ে এই হিংসার ঘটনার জন্য রাজ্যের মুসলিম তোষণের রাজনীতিকেই দায়ী করলেন লেখিকা তসলিমা নাসরিন।

ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করে লেখার কারণে নিজের দেশ বাংলাদেশ থেকেই বিতাড়িত হতে হয়েছিল লেখিকা তসলিমা নাসরিনকে। একই কারণে ধর্ম নিরপেক্ষ দেশ ভারতেও ঠাঁই মেলেনি বিতর্কিত এই লেখিকার। যদিও ভারতের বিভিন্ন জায়গায় প্রবেশাধিকার থাকলেও পশ্চিমবঙ্গে ঢুকতে পারেন না লজ্জার শ্রষ্ঠা।

উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বাদুড়িয়ার ঘটনা ঘিরে বুধবার ভোরের দিকে ফেসবুকে পোস্ট করেছেন তসলিমা নাসরিন। সমগ্র ঘটনার সঙ্গে নিজের পূর্ব অভিজ্ঞতার তুলনা টেনেছেন তিনি। বাদুড়িয়ার বিষয়ে তিনি লিখেছেন, “ফেসবুকে কাবার ফটোশপ ছবি নিয়ে যেভাবে মুসলমানেরা হিন্দুর ওপর আক্রমণ করেছে বাংলাদেশের নাসিরনগরে, তেমনি পশ্চিমবঙ্গের বসিরহাট, বাদুড়িয়াতেও এখন মুসলমানেরা হিন্দুর ওপর আক্রমণ করছে। সংখ্যালঘু হিন্দুর চেয়ে সংখ্যালঘু মুসলমানের জোর বেশি। মুসলিম তোষণ-রাজনীতিই এই জোরটা দেয়।”
https://www.facebook.com/nasreen.taslima/posts/1109278989216558

----
--