শিলিগুড়িতে জয় দিয়েই ট্রফি বাগাতে মরিয়া ব্যাঙ্গালুরু এফসি

শিলিগুড়ি: পাঁচ বছর পর শিলিগুড়িতে আগামী ২৩ তারিখ শিলিগুড়ি কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামের ফের মুখোমুখি মোহনবাগান –ব্যাঙ্গালুরু এফসি। ইতিমধ্যে ৩২ পয়েন্ট পেয়ে আইলিগ চ্যাম্পিয়ন হয়ে গিয়েছে ব্যাঙ্গালুরু এফসি। কাঞ্চনজঙ্ঘার মাঠে ম্যাচের শেষে আইলিগ চ্যাম্পিয়ন ব্যাঙ্গালুরু এফসিকে চ্যাম্পিয়ন হয়৷

ব্যাঙ্গালুরু এফসির খেলোয়ার ভেখোকে ব্যানগাই চো ২৩ তারিখ খেলবেন শ্বশুড় বাড়ির জেলার মাঠে। ভেখোকের শ্বশুড় বাড়ি কালিম্পঙে। শাশুড়ি জ্যোতি কার্কি শিলিগুড়িতে এসে জানালেন, পাঁচ বছর পর শিলিগুড়ির মাঠে খেলবে ভেখো৷ আর খেলা দেখার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে তার শশুর বাড়ির আত্মীয় স্বজন প্রতিবেশীরা। তারা সকলে সবচেয়ে বেশি উচ্ছ্বাস ওই দিন খেলার শেষে চ্যাম্পিয়ন হিসেবে ভেখোকের টিম তথা ব্যাঙ্গালুরু এফসি দেখতেই৷ কারণ, তারা ইতিমধ্যে চ্যাম্পিয়ন হয়ে গিয়েছে। গ্যালারিতে বসে সেই মুহূর্তটি চোখের সামনে দেখার জন্য ইতিমধ্যে কালিম্পং-বাসী শিলিগুড়ি আসার প্রস্তুতি নিয়ে ফেলেছেন।

জ্যোতি দেবী জানালেন, পাঁচ বছর আগে ভেখোকের কাছে শিলিগুড়ি কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামটির সঙ্গে আর একটা ইতিহাস জড়িত রয়েছে। তখন ভেখোকে ইস্টবেঙ্গলের হয়ে খেলতেন। এই মাঠে ইস্টবেঙ্গল এবং সিকিম ইউনাইটেডের ম্যাচ চলাকালীন হাঁটুর মধ্যে মারাত্মক চোট পান তিনি। এবং প্রায় এক বছর ফুট বলের জগত থেকে দুরে থাকতে হয়েছিল ভেখোকে। সুস্থ হয়ে ফেরার এত দিন পর ফের শিলিগুড়ির মাঠে খেলা তার। শাশুড়ি জ্যোতি করকি জানালেন, তার জামাই চায় এই মাঠে নিজের সেরা খেলা দিতে। জ্যোতি দেবী জানালেন তাই তারা সকলে চান লিগ চ্যাম্পিয়ন হলেও ওই দিন শিলিগুড়ির মাঠে যাতে ভেখোকের টিম ব্যাঙ্গালুরু এফসি জয়ী হয়। এদিন জ্যোতি দেবী জানালেন ২৩ তারিখ পরিচিতরা ছাড়াও পাহাড়ের দার্জিলিং কালিম্পং কার্শিয়ং মিরিক সব মানুষ ভেকোর খেলা দেখতে আসবে। কারণ ভেকো পাহাড়ে অনেক সমাজ সেবা মূলক কাজ কর্ম করেছেন৷ যার ফলে ভেকোর অনুগামীর সংখ্যা পাহাড়ে প্রচুর রয়েছে।

Advertisement ---
---
-----