সাউদি ঝড়ে দুরন্ত প্রতিরোধ বেয়ারস্টোর

ক্রাইস্টচার্চ: প্রথম টেস্টে ভরাডুবির রেশ পুরোপুরি কাটিয়ে উঠতে পারেনি ইংল্যান্ড৷ নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টেস্টে তাদের শুরুটা দেখে তেমনটাই মনে হওয়া স্বাভাবিক৷ তবে মার্ক উডকে নিয়ে উইকেটকিপার জনি বেয়ারস্টোর দুরন্ত লড়াই কিছুটা হলেও স্বস্তি দিতে পারে ব্রিটিশ শিবিরকে৷

ক্রাইস্টচার্চে টসে জিতে ইংল্যান্ডকে প্রথমে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান কিউয়ি দলনায়ক কেন উইলিয়ামসন, যিনি আগের দিনই আইপিএল ফ্রাঞ্চাইজি সানরাইজার্স হায়দরাবাদের নেতৃত্ব হাতে পেয়েছেন৷ বোল্ট-সাউদির নিয়ন্ত্রিত গতি ও স্যুইংয়ের সামনে শুরু থেকেই নিয়মিত অন্তরে উইকেট হারাতে থাকে ইংল্যান্ড৷

ওপেনার কুক ২ রান করে বোল্টের বলে বোল্ড হন৷ অপর ওপেনার স্টোনম্যান ৩৫ রান করে সাউদির বলে লাথামের হাতে ধরা দেন৷ তিন নম্বরে ব্যাট করতে নামা ভিন্স ব্যক্তিগত ১৮ রানে সাউদির বলে এবিডব্লিউ হন৷ সাউদির বলেই বোল্ড হওয়ার আগে অধিনায়র জো রুট দলের ইনিংসে ৩৭ রানের যোগদান রাখেন৷

- Advertisement -

খাতা খুলতে পারেননি ডেভিড মালান৷ এবিডব্লিউর ফাঁদে জড়িয়ে তাঁকে সাজঘরের পথ দেখান বোল্ট৷ বেয়ারস্টোর সঙ্গে জুটি বেঁধে ষষ্ঠ উইকেটে ৫৭ রান যোগ করেন বেন স্টোকস৷ শেষে স্টোকসকে ২৫ রানে ফেরত পাঠান বোল্ট৷ স্টুয়ার্ট ব্রড মাত্র ৫ রান করে সাউদির চতুর্থ শিকার হন৷

১৬৪ রানে ৭ উইকেট হারানো ইংল্যান্ড শিবিরকে কিছুটা হলেও লড়াইয়ে ফেরান বেয়ারস্টো-মার্ক উড জুটি৷ অষ্টম উইকেটের জুটিতে দু’জনে মিলে ৯৫ রান যোগ করেন৷ দিনের শেষ বেলায় ব্যক্তিগত ৫২ রানে দাঁড়িয়ে থাকা উডকে সাজঘরে ফিরিয়ে ইনিংসে পাঁচ উইকেটের বৃত্ত পূর্ণ করেন সাউদি৷ অভিষেককারী জ্যাক লিচকে সঙ্গী করে দিনর বাকি সময়টুকু নির্বিঘ্নে কাটিয়ে দেন বেয়ারস্টো৷

আপাতত ব্যক্তিগত শতরানের ঠিক দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে রয়েছেন বেয়ারস্টো৷ তিনি অপরাজিত রয়েছেন ৯৭ রানে৷ ১৫৪ বলের লড়াকু ইনিংসে তিনি ১১টি চার ও ১টি ছয় মেরেছেন৷ লিচ ব্যাট করছেন ব্যক্তিগত ১০ রানে৷ প্রথম দিনের শেষ ইংল্যান্ড ৮ উইকেট হারিয়ে ২৯০ রান তুলেছে৷

Advertisement ---
---
-----