দেবযানী সরকার, কলকাতা: বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় শুধু মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ ‘বন্ধু’ই নন৷ তিনি তাঁর ‘দিদিমণি’ও৷ মঙ্গলবার kolkata24x7.com-এর কাছে এমনই দাবি করলেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের অধ্যাপক স্বামী মনোজিৎ মণ্ডল৷ স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা চলার সময়ে কলকাতার এক কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের ‘ঘনিষ্ঠতা’ প্রকাশ্যে আসে৷ দু’ জনই দু’ জনকে ‘পারিবারিক বন্ধু’ বলে দাবি করেছেন৷

বৈশাখী কোনও দিনই পারিবারিক বন্ধু ছিলেন না: বিস্ফোরক শোভন-পত্নী

- Advertisement -

কিন্তু দু’ জনের দাবিই উড়িয়ে দিয়েছেন মেয়রের স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়৷ তাঁর সাফ কথা, বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে তাঁদের কোনও পারিবারিক বন্ধুত্ব নেই৷ যে কথা শুনে রত্না চট্টোপাধ্যায়ের উপর রীতিমতো চটে গিয়েছেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্বামী মনোজিৎ মণ্ডল৷ তিনি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজির অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রোফেসর৷

তিনি বলেন, ‘‘গত দু’ বছর ধরে আমাদের সঙ্গে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের পারিবারিক সম্পর্ক৷ শুধু বৈশাখীর সঙ্গেই নয়৷ আমার সঙ্গে, বৈশাখীর মায়ের সঙ্গে, আমাদের মেয়ের সঙ্গেও ওনার খুব ভালো সম্পর্ক৷ উনি খুবই খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন৷ ওনার শরীরের অবস্থা ভালো নয়৷ আমরা গোটা পরিবার ওনার পাশে আছি৷’’

এ সব কথা বলতে বলতেই মনোজিৎ মণ্ডল বলেন, ‘‘আমার স্ত্রী পলিটিক্যাল সায়েন্সের ছাত্রী৷ সংবিধানটা ও খুব ভালো জানে৷ আর ওর ইংরেজি ভাষার উপর দখল বেশ ভালো৷ ইংরেজি ভাষার উপর শোভন চট্টোপাধ্যায়ের অতটা দখল নেই৷ আমার স্ত্রী ওনাকে ইংরেজি ভাষা নিয়ে অনেক সাহায্য করেছেন৷ আমার স্ত্রীর সঙ্গে আইনি ব্যাপারেও উনি অনেক আলোচনা করেন৷’’

তাঁর জন্য কেউ পা ভেজালে নাক পর্যন্ত ডোবাবেন শোভন

এ দিনই মেয়র-পত্নী রত্না চট্টোপাধ্যায় সংবাদমাধ্যমকে বলেন, “বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথা শুনতে আমার ভালো লাগে না৷ উনি কোনও দিনই আমাদের পারিবারিক বন্ধু ছিলেন না৷ আর আমার তো ওনার কাছে সাহায্য চাইতে যাওয়ার কোনও প্রয়োজনই নেই৷ তবে উনি শোভন চট্টোপাধ্যায়কে কীভাবে সাহায্য করেছেন সে বিষয়ে আমার কিছু জানা নেই৷”

তবে মেয়র-পত্নীর এই বক্তব্যকে খুব একটা গুরুত্ব দিতে নারাজ মনোজিৎ মণ্ডল৷ তিনি বলেন, ‘‘উনি কী বললেন তাতে আমাদের কিছু আসে যায় না৷ সারদা-নারদে অভিযুক্ত কোনও নেতার স্ত্রীকে তো কোনও দিন ইডি ডাকেনি৷ ওনাকেই বা ডাকলেন কেন?’’

মেয়র ও মন্ত্রীর পদ থেকে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের পদত্যাগ নিয়ে যখন কিছু দিন ধরে প্রবল জল্পনা হচ্ছে, তখন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, তিনি তাঁর ‘বন্ধু’ শোভন চট্টোপাধ্যায়ের পাশে আছেন৷ সাহসী ও দৃঢ় কন্ঠে জানান, শোভন চট্টোপাধ্যায় যাতে ফিট থাকেন এবং তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি যাতে না হয়, তার জন্য তিনি সর্বদা খেয়াল রাখবেন৷ যদি তার জন্য তাঁকে শাস্তি পেতে হয়, তা হলেও কোনও অসুবিধা নেই৷

স্ত্রীর এই বক্তব্য সমর্থন করেন৷ স্ত্রীর লড়াইয়ে তিনি সব সময় পাশে আছেন বলেও জানিয়েছেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজির এই অধ্যাপক৷

----