জেনে নিন শেয়ারবাজারে শুরুটা কেমন হল বন্ধন ব্যাংকের

মুম্বই: মঙ্গলবার শেয়ার বাজারে শুরুতেই ছক্কা মারল বন্ধন ব্যাংক ৷ দিনের শুরুতে ইস্যু হওয়া মূল্যের চেয়ে প্রায় ৩৩ শতাংশ বেশি দামে এদিন নথিভুক্ত হতে দেখা গেল বন্ধন ব্যাংকের শেয়ারকে৷ যেখানে ইস্যু মূল্য ছিল ৩৭৫ টাকা সেখানে এদিন এনএসই-তে নথিভুক্ত হওয়ার সময় দাম ওঠে ৪৯৯টাকায়৷

বিএসই-তে বন্ধন শেয়ারের দাম ওঠে ৪৮৫ টাকা অর্থাৎ ইস্যু মূল্যের থেকে ২৯ শতাংশ বেশি৷ সকাল দশটা ৪মিনিট নাগাদ বিএসই এবং এনএসই-তে বন্ধন ব্যাংকের শেয়ারের দাম ছিল ৪৭২টাকা৷ ৩৫.১১ মিলিয়ন এই শেয়ার হাত বদল হয়েছে এই দুই স্টক একচেঞ্জে৷

গত সোমবারই ছিল বন্ধন ব্যাংকের আইপিও-র শেষদিন৷ বন্ধন ব্যাংকের ইস্যু হওয়া শেয়ার কিনতে আবেদন জমা পড়ে প্রায় ১৫গুণ৷দুর্বল শেয়ার বাজার হওয়া স্বত্তেও এই ব্যাংকের ২৪৫ বিলিয়ন টাকার শেয়ার কেনার জন্য চাহিদা দেখা গিয়েছে, যদিও অফার করা হয়েছে ৩১ বিলিয়ন টাকার শেয়ার৷১৫ মার্চ বন্ধন ব্যাংকের শেয়ার ইস্যু শুরু হয়ে তা চালু ছিল ১৯ মার্চ পর্যন্ত৷ এই ব্যাংক এবং এর শেয়ারহোল্ডাররা ১১৯.৩ মিলিয়ন শেয়ার অথবা ইস্যুর পরে ব্যাংকের মূলধনের ১০ শতাংশ বেচতে পারবে৷ এই আইপিও-তে শেয়ারের দাম ধার্য করা হয় ৩৭০-৩৭৫ টাকা৷

ব্যাংক বিক্রি করবে ৯৭.৭ মিলিয়ন নতুন শেয়ার এই আইপিও থেকে ৷ বিশ্ব ব্যাংকের অংশ ইন্টারন্যাশনাল ফিনান্স কর্পোরেশন এবং আইএফসি এফআইজি মিলে ২১.৬ মিলিয়ন শেয়ার বেচছে। ওই শেয়ার বিএসই এবং এনএসই দুই স্টক এক্সচেঞ্জে নথিভুক্ত করা হবে৷ বন্ধন ব্যাংক হল ভারতে প্রথম কোন মাইক্রো ফিনান্স যা ব্যাংকে পরিণত হয়েছে ৷ ২০১৪ সালে বন্ধন ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস রিজার্ভ ব্যাংকের কাছ থেকে ব্যাংকিং লাইসেন্স পেয়েছিল৷

Advertisement
----
-----