ত্রিদেশীয় সিরিজে বাংলাদেশের ‘লঙ্কা জয়’

কলম্বো: ঘরের মাঠে বাংলাদেশের কাছে হার হজম করতে হল শ্রীলঙ্কাকে৷ মুশফিকুর রহিমের ব্যাটে বড় রান তাড়া করে লঙ্কাকে হারাল বাংলাদেশ৷ ২১৪ রান তাড়া করে পাঁচ উইকেট ম্যাচ জিতে নিল বেঙ্গল টাইগাররা৷

ত্রিদেশীয় নিদাহাস ট্রফিতে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে টস জিতে লঙ্কানদের ব্যাট করতে পাঠায় বাংলাদেশ অধিনায়ক মেহমুদ্দউল্লা৷ প্রথম ব্যাট করে ২০ ওভারে ২১৪ রান তোলে শ্রীলঙ্কা৷ ৪৮ বলে ৭৪ রানের একটি একটি অনবদ্য ইনিংস খেলেন তিন নম্বরে ব্যাট করতে আসা বাঁহাতি ব্যাটসম্যান কুসল পেরেরা৷ তাঁকে যোগ্য সংগত দেন কুসল মেন্ডিস৷ ৫টি ছয় ও দু’টি চারের সাহায্যে ৩০ বলে ৫৭ রানের একটি ঝোড় ইনিংস খেলেন তিনি৷

প্রেমদাস স্টেডিয়ামে ২১৫ রানের বড় লক্ষ্য নিয়ে যখন বাংলার টাইগাররা খেলতে নামছেন একবারও মনে হয়নি মেহমুদ্দউল্লাহের প্রথম বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত সঠিক ছিল৷ কিন্তু এখান থেকেই সমস্ত হিসাব নিকাশ উল্টে দিয়ে দু’বল বাকি থাকতে প্রোয়জনীয় রান তুলে নেয় বাংলাদেশ৷

- Advertisement -

দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও লিটন দাসের ব্যাটে ৯ ওভারেই ১০০ রান তোলে বাংলাদেশ৷ ৫টি ছয় ও ২টি চারের সহযোগে ১৯ বলে ৪৩ রানের একটি বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন লিটন৷ ২৯ বলে ৪৭ রান করেন তামিমও৷ তবে অনবদ্য ব্যাট করে অপরাজিত থেকে বাংলাদেশের জয় নিশ্চিত করেন উইকেট কিপার মুশফিকুর রহিম৷ ৩৫ বলে অপরাজিত ৭২ রান করেন তিনি৷ ১১ বলে ২০ রান করে আউট হন টাইগারদের অধিনায়ক মেহমুদ্দউল্লাহ৷

অবিশ্বাস্যভাবে দু’বল বাকি থাকতে ৫ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় বাংলাদেশ৷ স্বাভাবিকভাবেই প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচ হয়েছেন মুশফিকুর রহিম৷

ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি নিদাহাস ট্রফিতে এখনো পর্যন্ত তিনটি ম্যাট খেলা হয়েছে যেখানে তিনটি দলই একটি করে ম্যাচ জিতে রয়েছে৷ প্রথম ম্যাচে ভারতকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে শ্রীলঙ্কা৷ দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে ‘মেন ইন ব্লু’ তৃতীয় ম্যাচে লঙ্কানদের হারল বাংলাদেশ৷ অর্থাৎ দু’টি করে ম্যাচ খেলে প্রতিটি দলই একটি করে ম্যাচ জিতে রয়েছে৷ প্রত্যাকটি টিমের আরও দু’টি করে ম্যাচ বাকি রয়েছে৷ এরকম অবস্থা থেকে নিদাহাসের পরের ম্যাচগুলি ‘ডু অর ডাই’ হতে চলেছে৷

Advertisement
---