সোশ্যাল মিডিয়ায় গুজব রুখতে কোমর কষে নামছেন প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা:  বাংলাদেশে গুজব বন্ধ করার লক্ষ্যে সরকার বিশেষ সেল তৈরির পরিকল্পনা করেছে। এই সেলের মূল দায়িত্ব হবে গণমাধ্যমে এবং ফেসবুক, টুইটার বা ইউটিউবের মতো সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে যেসব গুজব ছড়ানো হয় তার উৎস অনুসন্ধান করা এবং তথ্য যাচাই-বাছাই করে আসল ঘটনা জনসাধারণকে জানিয়ে দেয়া। বিবিসি জানাচ্ছে এই খবর৷

সম্প্রতি একটি দুর্ঘটনায় দুই পড়ুয়ার মৃত্যুকে ঘিরে শুরু হয়েছিল নিরাপদ সড়ক আন্দোলন৷ তাতে তৈরি হয়েছিল অচলাবস্থা৷ সেই আন্দোলনে গুজব ছড়িয়ে উত্তেজনা তৈরির অভিযোগে গ্রেফতার হন অভিনেত্রী নওশাবা আহমেদ ও বিশিষ্ট আলোকচিত্রী শহিদুল ইসলাম৷ পরে নওশাবা মুক্তি পেয়েছেন৷ কিন্তু শহিদুল এখনও বন্দি৷

বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বিবিসিকে বলেন, আমরা লক্ষ্য করছি সামাজিক মাধ্যমে একটি বিশেষ চক্র, বিশেষভাবে সাম্প্রদায়িক চক্র, যুদ্ধাপরাধী চক্র, ক্রমাগতভাবে গুজব ছড়াচ্ছে। এটা সমাজে অস্থিতিশীলতা তৈরি করছে, অবিশ্বাস তৈরি করছে এবং সংঘর্ষের উস্কানি দিচ্ছে। এর জন্যই সরকার মনে করছে গুজবের বিরুদ্ধে জনসাধারণকে সতর্ক করা এবং সচেতন করার প্রয়োজন রয়েছে।

- Advertisement -

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে যেসব গুজব ছড়িয়ে পড়ছে, এই সেল সেগুলো তা সনাক্ত করবে, গুজবের উৎস অনুসন্ধান করবে, গুজবের বিষয় সনাক্ত করবে, এবং এই ব্যাপারে প্রকৃত সত্য সম্পর্কে জনসাধারণকে জানিয়ে দেবে। এসব গুজবের বিষয়ে প্রয়োজনবোধে সরকারের বিভিন্ন এজেন্সিকেও জড়িত করা হবে বলে জানান হাসানুল হক ইনু।

Advertisement ---
---
-----