বেঙ্গালুরুর ট্রেন ধরার আগেই পুলিশের জালে একাধিক বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারী

হাওড়া:  ১৬ জন বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীকে গ্রেফতার করল হাওড়া গোয়েন্দা পুলিশ। বুধবার দুপুর নাগাদ হাওড়া স্টেশনের ১৮ নং প্ল্যাটফর্মের বাইরে গোলাবাড়ি থানা এলাকা থেকে এদের হাতেনাতে ধরা হয়। ধৃতদের মধ্যে ৬ জন মহিলা। এরা সকলেই বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলার বাসিন্দা বলে পুলিশ জানিয়েছে। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে এরা হাওড়া স্টেশন থেকে ট্রেন ধরে বেঙ্গালুরু যেত। এদের কাছে বৈধ পাসপোর্ট এবং কোনও কাগজপত্র না থাকায় পুলিশ এদের গ্রেফতার করে পুলিশ।

হাওড়া সিটি পুলিশের গোয়েন্দা প্রধান রণেন্দ্র নাথ বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, লাল্টু মল্লিক ওরফে মিঠুন নামের এক ব্যক্তি বাংলাদেশ থেকে এদের ভারতে এনেছিল। কি কারণে বেঙ্গালুরুতে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল! ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার ধৃতদের হাওড়া আদালতে তোলা হবে বলে জানা গিয়েছে।

গোয়েন্দা পুলিশ সূত্রের খবর, এরা বেনাপোল সীমান্ত পেরিয়ে এদেশে ঢুকেছিল।

- Advertisement -

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বেনাপোল অন্তর্জাতিক সীমানা বেআইনিভাবে পেরিয়ে এই দলটি এদিন সকালেই ভারতে ঢোকে। সেখান থেকে এজেন্টের সাহায্যে এই দলটি দুপুরে হাওড়া স্টেশনে এসে পৌঁছয়। বিশেষ সুত্রে খবর পেয়ে সীমানা পেরানোর পর থেকেই এই দলটিকে নজরে রাখতে থাকেন পুলিশের গোয়েন্দারা। বেশ কয়েকটি ছোটো ছোটো দলে ভাগ হয়ে তারা এসে পৌঁছায় হাওড়া স্টেশনে। প্রত্যেক ট্রানজিট পয়েন্টেই সাহায্যের জন্যে থাকত একটি করে মোবাইল নম্বর। সেই নম্বরে ফোন করলেই পরের ট্রানজিট পয়েন্টে যাওয়ার ব্যবস্থা করে দিত ওই এজেন্ট।

এদের সাথেই ধরা পড়ে হাওড়ার উলুবেড়িয়ার বাসিন্দা লাল্টু মল্লিক ওরফে মিঠুনও। মূলত কাজের ধান্দায় এরা ভারতে এসেছিল। সীমানা পার হওয়ার জন্যে বেশ কয়েক হাজার টাকা করে জনপ্রতি বাংলাদেশের এজেন্টকে দেওয়া হয়েছিল বলে জানা গিয়েছে।

Advertisement
---