ফাইল ছবি

নয়াদিল্লিঃ  আগামী পাঁচদিন যাবদ বন্ধ থাকবে ব্যাংকগুলির লেনদেন প্রক্রিয়া৷ এমনই খবর উঠে এসেছে সংবাদ মাধ্যমে৷ কিন্তু, সত্যিই কী বন্ধ থাকবে ব্যাংকিং পরিষেবা? নাকি পুরোটাই গুজব৷ কী বলছে তথ্য? রির্পোট জানাচ্ছে, ১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে চলেছে এই লেনদেন বন্ধের প্রক্রিয়াটি৷ ১ সেপ্টেম্বর অর্থাৎ শনিবার৷ এবং মাসের প্রথম শনিবার। যদিও, মাসের দ্বিতীয় এবং চতুর্থ শনিবার বাদে দেশের সমস্ত ব্যাংকই শনিবার খোলা থাকে৷

২ সেম্পেম্বর রবিবার, ছুটির দিন৷ স্বাভাবিকভাবেই, বন্ধ থাকবে ব্যাংক৷ ৩ সেপ্টেম্বর, সোমবার বেশ কিছু রাজ্যে ব্যাংক বন্ধ থাকছে জন্মাষ্টমী উপলক্ষে৷ তবে এই রাজ্যে এখনও পর্যন্ত জন্মাষ্টমী উপলক্ষে খোলা থাকছে এই রাজ্যের ব্যাংকগুলি।

এখানেই শেষ নয়, আগামী ৪ ও ৫ সেপ্টেম্বরও বন্ধ থাকছে ব্যাংক৷ কারণ, অবশ্যই কোন সরকারি ছুটি নয়৷ রির্পোটের তথ্য জানাচ্ছে, ৪ ও ৫ সেপ্টেম্বর গনছুটি নিচ্ছেন রিজার্ভ ব্যাংকের কর্মী-অফিসাররা। কারণ, দীর্ঘদিন ধরে ঝুলে থাকা পেনশন সংক্রান্ত দাবিতে দুদিনের ধর্মঘটে যাচ্ছেন United Forum of Reserve Bank Officers and Employees।

তবে এখনও পর্যন্ত বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলির কোনও ধর্মঘটের কথা জানা যায়নি। আগামী ৪ এবং ৫ সেপ্টেম্বর খোলা থাকছে সমস্ত ব্যাংক। তবে রিজার্ভ ব্যাংক বন্ধ থাকলে ব্যাংকের চেক-ট্রান্সফার কিংবা চেক ক্লিয়ারিংয়ে কিছুটা সমস্যা হতে পারে। তবে এই চেক ক্লিয়ারিংয়ের অনেকটা কাজই ন্যাশানাল পেমেন্ট করপোরেশন মারফৎ হয়। ফলে সেখানে কোনও প্রভাব পড়বে না। এছাড়া অন্যান্য ব্যাংকিং পরিষেবা (যেমন ফিক্সড ডিপোজিট ভাঙানো, টাকা তোলা ইত্যাদি) কোনও সমস্যা হবে না।

----
--