শেষ হল বাঁকুড়া বইমেলা

তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়া: শেষ হলো ৩৩ তম বাঁকুড়া জেলা বইমেলা। বইমেলার শেষ দিনে প্রথামাফিক আগামী বছরের বইমেলার নির্ঘণ্ট ঘোষণা করা হলো।

গত ২৭ ডিসেম্বর ৩৩ তম বাঁকুড়া জেলার আনুষ্ঠানিকভাবে বইমেলার উদ্বোধন করেন কথাসাহিত্যিক স্বপ্নময় চক্রবর্তী। এবছর জেলা ও কলকাতার মিলিয়ে ৮৬টি প্রকাশনা সংস্থা ও ১৯টি বাণিজ্যিক সংস্থার স্টল ছিল। একই সঙ্গে লিটল ম্যাগাজিনের জন্য আলাদা টেবিলের ব্যবস্থা ছিল।

আরও পড়ুন- নোয়াপাড়া উপনির্বাচনে মুকুলকে প্রার্থী হওয়ার চ্যালেঞ্জ অর্জুনের

- Advertisement -

মঙ্গলবার বইমেলার শেষ দিনে মেলা কমিটির পক্ষে অরূপ খাঁ এক সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন, সোমবার পর্যন্ত সবমিলিয়ে প্রায় আশি লক্ষ টাকা বই বিক্রি হয়েছে। সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি এদিন ঘোষণা করেন, আগামী বছর বইমেলা ২৬ ডিসেম্বর শুরু হবে চলবে ১ জানুয়ারি, ২০১৯ পর্যন্ত। এছাড়াও আগামী বছরের বাঁকুড়ার সু-সন্তান যামিনী রায়ের স্মরণে ও টেরাকোটা শিল্পকে থিম হিসেবে উপস্থাপিত করা হবে বলেও তিনি জানান।

বিশিষ্ট ক্ষেত্র সমীক্ষক ও পুস্তক প্রণেতা বিপ্লব বরাট বলেন, রাজ্যের বিভিন্ন অংশের বইমেলায় যোগ দিয়েছি। কিন্তু বাঁকুড়া বইমেলায় যোগ দেওয়ার আনন্দই আলাদা। প্রত্যেক দিন মেলায় থাকার সুবাদে নিজের অভিজ্ঞতার নিরিখে তিনি বলেন, এবছর মেলায় প্রচুর জনসমাগম অন্যান্য বছরের তুলনায় বেশী ছিল। কম-বেশী বইও সবার বিক্রি হয়েছে বলে তিনি জানান।

Advertisement
-----