স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: পাঁচদিনের মধ্যেই মুকুল রায়ের অভিযোগের পাল্টা জবাব দিল স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব৷শনিবার জেলার সভাধিপতি অরূপ চক্রবর্তী তৃণমূলের একদা ‘সেকেন্ড ইন কমান্ড’কে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করেন৷

গত ২৬ ডিসেম্বর গঙ্গাজলঘটিতেই সভা করেছিল বিজেপি৷ সেই দলীয় সভা থেকে জেলার তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্বকে কড়া আক্রমণ করেছিলেন মুকুল রায়৷ জেলার নেতাদের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে কয়লা,বালি তোলার অভিযোগ করেছিলেন তিনি৷কাঠগড়ায় তুলেছিলেন স্থানীয় পুলিশকেও৷পাঁচ দিনের মাথায় মুকুল রায়ের অভিযোগের জবাব দিল স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব৷

মানস ভুঁইয়া, ব্রাত্য বসুদের উপস্থিতিতেই বাঁকুড়ার তৃণমূল নেতা তথা জেলার সভাধিপতি অরূপ চক্রবর্তী বলেন, এখানে দুজন ওয়াগেন রেকার সভা করতে এসেছিল শুনেছি। তারা আমার বিরুদ্ধে এবং জেলা প্রশাসনের বিরুদ্ধে কথা বলেছে। চোরের মায়ের বড় গলা।আগে তৃনমূলে ওই শনি ছিল। এখন বিজেপিতে শনি ঢুকেছে। চুরি করে জেল খাটার ভয়ে বিজেপিতে ঢুকেছে।মানুষ ওকে মেনে নেয়নি।মানুষ সব বুঝতে পেরেছে।

এদিন জেলার নেতারা মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেও মানস ভুঁইয়া, ব্রাত্য বসুরা ‘মুকুল অ্যাটাক’- এর পথে হাঁটেননি৷তবে এদিনের সভা থেকে মোদী সরকারের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছেন এই নেতারা৷

আগামী ৬ জানুয়ারি এখানেই সভা করবেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তার আগে প্রস্তুতি সভা থেকে বক্তৃতার ঝাঁঝ বাড়িয়ে সেই সভার হাওয়া গরম করে দিলেন জেলার নেতারা৷

----
--