সবুজ ঘাসে (grass)  খালি পায়ে হাঁটুন৷ সকালে প্রাতঃ ভ্রমণে বেরিয়ে  ব্যায়াম করার সময় কিছুক্ষণ ঘাসের উপর দিয়ে  হাঁটতে বা দৌড়ানর চেষ্টা করুন৷বিশেষত ঘাসের ওপর দিয়ে খালি পায়ে কিছুক্ষণ হেঁটে নিন। কারণ খালি পায়ে ঘাসের উপর দিয়ে হাঁটলে  দেহের উপকার হয় এবং শরীর ও মন দুটোই ভালো থাকে৷ তাছাড়া ওজন কমাতে ও সুস্থ থাকতে হাঁটা সবচাইতে ভালো শরীরচর্চা। ঘাসে হাঁটার সুফল দেখে নিন এক নজরে৷

দৃষ্টি শক্তি: আমাদের পায়ে অনেক reflexology জোন আছে যা দেহের চোখ সহ অনেক অঙ্গের সাথে যুক্ত।  খালি পায়ে হাঁটলে তখন গোটা দেহের  ভার থাকে পায়ের ওপর। পায়ের reflexology জোন যেহেতু চোখের সাথেও যুক্ত তাই ঘাসের ওপর দিয়ে খালি পায়ে হাঁটলে চোখেরদৃষ্টি শক্তিবৃদ্ধি পায়। এছাড়া চোখের স্বাস্থ্যের জন্য সবুজ রং খুব উপকারী। তাই চোখের সুস্থতার জন্য প্রতিদিন সকালে ঘাসের ওপর দিয়ে হাঁটুন।
পা সুস্থ রাখে

খালি পায়ে হাঁটতে পারলে পায়ের জন্য খুব ভালো ব্যায়াম হয়।এরফলে পায়ে শক্তি বৃদ্ধি পায়, পেশী মজবুত হয়, পায়ের রগ ও লিগামেন্টস, পায়ের গোড়ালি এবং পায়ের পাতা শক্তি বৃদ্ধি পায়। খালি পায়ে ঘাসে হাঁটলে কোনও কোনও আঘাত নিরাময় হয়, হাঁটুর সমস্যা ভালো হয়, পিঠের সমস্যাও ভালো হয়ে যায়৷

স্ট্রেস দূর করে : ভোরবেলা সকালে খালি পায়ে ঘাসের উপর দিয়ে হাঁটলে  মন খুব শান্ত থাকে ও সকালের পরিষ্কার বাতাস, মৃদু সূর্যের আলো ও সবুজ পরিবেশ সবকিছু মিলিয়েই মনকে চাঙ্গা রাখার চেষ্টা করে। সকালে হাঁটার মাধ্যমে ফ্রেশ অক্সিজেন গ্রহণ করি আমরা, সূর্যের আলো দেহে ভিটামিন ডি যোগায় এবং সকালের শান্ত পরিবেশ আমাদের মন ভালো রাখে।

দেহে ভিটামিন ডি  যোগায় : খালিপায়ে ঘাসের ওপর দিয়ে হাঁটলে তখন সূর্যের রশ্মি আমাদের দেহে ভিটামিন ডি যোগায়, ভিটামিন ডি আমাদের দেহের হাড় মজবুত করে, এবং হাড়ের যে কোন সমস্যা রোধ করতে সাহায্য করে। তাই সুস্থ থাকতে সকালের অথবা বিকেলের মৃদু রোদে খালি পায়ে ঘাসের ওপর কিছুক্ষণ হাঁটুন।
pic- un cut walk on grass

----
--