মুম্বই : মুক্তি পেল ‘বত্তি গুল মিটার চালু’র নতুন গান ‘হার্ড হার্ড’৷ মিকা সিং মানেই ধামাকেদার পার্টি সং৷ আবারও ফুটে ট্যাপিং ট্র্যাক নিয়ে হাজির মিকা সিং৷ গানটি মিকা সিং ছাড়াও গেয়েছেন সাচেত টন্ডন, প্রকৃতি কক্কর৷ অন্যদিকে ছবির তিন মুখ্য নায়ক নায়িকা, শাহিদ, শ্রদ্ধা এবং দিব্যেন্দুর এনার্জেটিক মুভস৷

‘বত্তি গুল মিটার চালু’র ট্রেলার চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে৷ ট্রেলারের প্রথমদিকে ছবিটি কমেডি মনে হোলেও আসলে কমেডির মোড়কে রয়েছে দুর্নীতির বিরুদ্ধে কড়া জবাব। তবে ডার্ক কমেডি ভেবে বসলে কিন্তু ভুল করবেন। আজকাল কমার্শিয়াল এবং নন-কমার্শিয়াল ছবি বলে ভাগাভাগি করা চলে না। কারণ কমার্শিয়াল ছবিতেও হিরো-হিরোইনের নাচ এবং রোম্যান্স ছাড়াও দর্শকের মনে দাগ কাটার মতো অনেক কিছুই থাকে। সেই ধরণের সামাজিক বার্তা দিতেই ‘বত্তি গুল মিটার চালু’।

আরও পড়ুন: প্রকাশ্যে আবীর-তনুশ্রীর জামা-বদল!

শাহিদ, শ্রদ্ধা এবং দিব্যেন্দু ছবির মুখ্য তিনটি চরিত্র৷ তিন বন্ধু বিমল (শাহিদ), নৌটি (শ্রদ্ধা) এবং ত্রিপাঠি (দিব্যেন্দু) যে জায়গায় থাকে সেই পাহাড়ি এলাকায় বিদ্যুতের খুব সমস্যা৷ চব্বিশ ঘন্টায় অধিকাংশ সময়ই বিদ্যুৎ থাকে না৷ এমনই পরিস্থিতিতে অদ্ভুতভাবে ত্রিপাঠির কাছে আড়াই লাখ টাকার বিল পৌঁছে যায়৷ যে জায়গায় অর্ধেক সময় বিদ্যুৎ থাকে না সেখানে এতো টাকার বিল আসে কী করে! সমাজের ওপরের মহল থেকে শুরু করে ইলেকট্রিসির অফিসেও কথা বলে এই বিলের কারণ খোঁজার চেষ্টা করে সে৷ উল্টে তাকে হুমকি দেওয়া সময় মত বিল পেমেন্ট না করলে তাঁর বাড়িতে ওয়ারেন্ট যাবে৷ পরিস্থিতির চাপ সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করে ত্রিপাঠি৷ একটি ইলেকট্রিসিটি বিলের কারণে দুর্বিসহ হয়ে উঠল সকলের জীবন৷

ত্রিপাঠির আত্মহত্যায় তার পরিবার ছাডা়ও সবচেয়ে বেশি আঘাত পেল বিমল এবং নৌটি৷ শুরু হল তাদের লড়াই৷ দিব্যেন্দুর মৃত্যু আদেও আত্মহত্যা নয়, সমাজের দুর্নীতি তাকে খুন করেছে৷ তাকে নিজের প্রাণ নিতে বাধ্য করেছেন৷ সমাজের উঁচু স্তরের প্রত্যেকের সঙ্গে সংঘর্ষে নামতে থাকে বিমল৷ তার পাশে ঢাল হয়ে দাঁড়ায় নৌটি৷ তাদের লড়াই আদালতের চার দেওয়াল অবধিও উঠে যায়৷ অবশেষে কী হবে হবে এর পরিণাম? উত্তর মিলবে ২১ সেপ্টেম্বর৷ সব ঠিকমত চললেই চলতি বছর সেপ্টেম্বরে মুক্তি পাবে ছবিটি৷

আরও পড়ুন: ডাবু + সানি = হটকেমিস্ট্রিতে ক্লিন বোল্ড দুনিয়া

শাহিদ শ্রদ্ধার পাহাড়ি অ্যাকসেন্টে ইতিমধ্যে থাম্বস আপ বসিয়ে দিয়েছেন ভক্তরা৷ তাঁদের বডি ল্যাঙ্গুয়েজ থেকে শুরু করে ডায়লগ, কস্টিউম সব পছন্দ হয়েছে নেটিজেনের৷ ছবির পরিচালনায় রয়েছেন শ্রী নারায়ণ সিং৷ মুভিতে অন্যান্য ভূমিকায় দেখা যাবে সুধির পান্ডে, সুপ্রিয়া পিলগাওকরকে৷ বহুদিন পর বিগস্ক্রিনে ফিরছেন ফারিদা জালাল৷ ইয়ামি গৌতমও রয়েছেন একজন আইনজীবির চরিত্রে৷ তবে ট্রেলারে ইয়ামির তেমন দৃশ্য ছিল না৷

https://www.youtube.com/watch?v=uvcU_pvcdj4

----
--