খুচরো নিয়ে বিডিও অফিসে বিক্ষোভে ভিক্ষুকরা

স্টাফ রিপোর্টার, রায়গঞ্জ: ভিক্ষে করেই সংসার চলে তাঁদের৷দিনভর মানুষের কাছে হাত পেতে ঝুলিও ভর্তি হয়ে যাচ্ছে৷অথচ পেটের ক্ষুধা মিটছে না৷কারণ, ব্যবসায়ীরা তাঁদের কাছ থেকে খুচরো নিতেই চাইছে না৷ফলে ভিক্ষে করে টাকা উপার্জন করেও দিন কাটছে অর্ধাহারে, অনাহারে৷

অগত্যা, খুচরো পয়সাকে কেন্দ্র করে তৈরি হওয়া সমস্যার সমাধানে বৃহস্পতিবার কালিয়াগঞ্জের ব্লক অফিসে বিক্ষোভ দেখালেন ভিক্ষুকরা৷অবিলম্বে সমস্যার সমাধান না করা হলে বৃহত্তর আন্দলন সংগঠিত করারও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তাঁরা৷এদিন পশ্চিমবঙ্গ সর্বহারা সমিতির উত্তর ও দক্ষিন দিনাজপুর জেলা কমিটির ব্যানারে কালিয়াগঞ্জের ভিক্ষুকরা একত্রিত হয়ে মিছিল করে বিডিও অফিসের সামনে জড় হন৷

সেখানে নিজেদের ভিক্ষা করে উপার্জন করা ১ টাকা ও ২ টাকার কয়েন ডাঁই করে রেখে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করেন। পরে তাঁদের এক প্রতিনিধি দল বিডিও মহম্মদ জাকারিয়া সঙ্গে দেখা করে খুচরো পয়সা সমস্যা সহ মোট সাত দফা দাবি জানান৷ ভিক্ষুকদের নেতা কালাচাঁদ ঋষির অভিযোগ, ‘রোদে জলে ভিজে মানুষের দোরে দোরে ভিক্ষা করে দিন কাটাতে হয়৷ মানুষ ভিক্ষেও দিচ্ছেন৷ অথচ দিনের শেষে ওই ১টাকা, ২ টাকার কয়েন নিয়ে দোকানে সামগ্রী কিনতে গেলে দোকানদাররা খুচরো নিচ্ছেন না। অপমান করে দূর দূর করে তাড়িয়ে দিচ্ছে৷’’

- Advertisement -

ফলে তাঁদের চরম সমস্যার মধ্যে পড়তে হচ্ছে। স্বভাবতই, ভিক্ষুকদের হাল কার্যত রোজগার করেও না খেতে পেয়ে মরার মতোই৷ তাই এদিন খুচরো পয়সার সমস্যা সমাধানে ভিক্ষুকরা একত্রিত হয়ে বিডিও অফিসে জড় হন৷দেখা করেন বিডিও মহম্মদ জাকারিয়ার সঙ্গে৷বিডিও মহম্মদ জাকারিয়া জানান, ‘‘‘‘‘ভিক্ষুকরা এসেছিল খুচরো পয়সা সহ বেশ কিছু দাবি নিয়ে। আমি এবিষয়ে ব্যাংকের সঙ্গে কথা বলে সমস্যার সমাধানের চেষ্টা করব৷’’

 

 

Advertisement
----
-----