কন্যা সন্তান হওয়ায় ঝোপে ফেলে পালাল বাবা ও মা

স্টাফ রিপোর্টার, সিউড়ি: কন্যা সন্তান হওয়ায় পরিত্যক্ত জঙ্গলে দুধের শিশুকে ফেলে পালাল বাবা মা। হ্যাঁ, ঠিক এমনটাই ঘটেছে সিউড়ি নুড়াই পাড়া এলাকায়। মঙ্গলবার সারা রাত ঝোপের মধ্যেই পড়েছিল ওই শিশুটি৷ বুধবার সকাল হতে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় বাসিন্দারা।

প্রসঙ্গত, সিউড়ি নুড়াই পাড়া সিংহ বাহিনী মন্দির সংলগ্ন অভিযুক্ত তাপস ও ছুটকির সংসার৷ পেশায় টোটো চালক তাপসের আগে পাঁচটি সন্তান রয়েছে। পাঁচ সন্তানের মধ্যে তাঁদের প্রথম সন্তান ছিল কন্যা। বাকি চারটি পুত্র সন্তান। ফের তাঁদের ষষ্ঠ সন্তানের জন্ম হয় মঙ্গলবার সন্ধ্যায়। তবে এ সংবাদ তাঁদের কাছে সুখকর ছিল না৷ কারণ ষষ্ঠ সন্তান কন্যা সন্তান৷ তাই, শিশুটির জন্ম হতেই বাড়ির কিছুটা দূরে মন্দিরের পিছনের ঝোপে শিশুটিকে কাপড় জড়িয়ে ফেলে চলে যায় তাপসবাবু। এদিকে বুধবার বেলা বাড়তে শিশুর কান্না শুনতে পায় এলাকার আরেক টোটো চালক উদয় অঙ্কুর। শিশুর কান্না শুনে তিনিই পাড়ার লোককে ডাকেন।

ততক্ষণে সারারাত বৃষ্টিতে ভিজে আর ভোরের শিশিরে বাচ্চাটি অসুস্থ হয়ে পরে। এমনকি শিশুটির সারা গায়ে পোকারা আস্তানা গড়তে শুরু করে। এই দৃশ্যের পর তড়িঘড়ি বাচ্চাটিকে উদ্ধার করে রুনু বাগদি নামে এক মহিলা দুধ খাইয়ে সিউড়ি হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়। হাসপাতালে শিশুটির অবস্থার অবনতি হলে তাকে শিশু পরিচর্যা কেন্দ্রে ভরতি করা হয়। এরপরেই নুড়াই পাড়ায় খোঁজ শুরু হয় কে ছিল সন্তান সম্ভবা। খবর আসে তাপসের পরিবারের।
স্থানীয় বাসিন্দারা তাপসের বাড়িতে চড়াও হয়।

- Advertisement -

এই ঘটনা তাপস ও তার স্ত্রী প্রথমে অস্বীকার করে। পরে পাড়ার লোকের চাপে সদ্যোজাত মেয়েকে ঝোপে ফেলে আসার কথা স্বীকার করে নেয় তারা। এরপরেই পাড়ার লোক তাপসকে ধরে গণপ্রহার দেয়। তাপসবাবু জানায়, পরপর পাঁচটি সন্তান রয়েছে তাঁদের। তাঁর একার আয়ে সংসার চালাতে হিমসিম খাচ্ছে। তাই ষষ্ঠ সন্তানটিও মেয়ে হওয়ায় বাধ্য হয়ে পরিত্যক্ত জঙ্গলে ফেলে দিয়ে আসে৷

বর্তমানে ওই শিশুকে সিউড়ি হাসপাতালের শিশু পরিচর্যা কেন্দ্রে ভরতি রাখা হয়েছে। হাসপাতাল সুপার শোভন দে বলেন, ‘‘শিশুটির উপর নজরদারি রাখা হয়েছে। দু’দিন না গেলে কিছু বলা যাচ্ছে না।’’ ইতিমধ্যেই শিশুটির মা ছুটকি বাগদিকে সিউড়ি থানার পুলিশ তুলে আনে। গোটা ঘটনা খতিয়ে দেখছে স্থানীয় থানার পুলিশ৷ যদিও এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে কোনও লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি বলে জানা গিয়েছে৷

Advertisement ---
---
-----