সংখ্যালঘু স্কলারশিপে রেকর্ড গড়েছে বাংলা: মমতা

মাদ্রাসার কৃতি পড়ুয়াদের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

কলকাতা: সংখ্যালঘু তোষণ করেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দীর্ঘদিন ধরে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে এই অভিযোগ করে আসছে বিরোধী শিবির। বাম-বিজেপির সঙ্গে কংগ্রেস নেতাদের মুখেও শোনা গিয়েছে এই অভিযোগের সুর।

যাবতীয় অভিযোগ এবং বিতর্ক উপেক্ষা করে সংখ্যালঘু উন্নয়নে বাংলা নয়া রেকর্ড গড়েছে বলে দাবি করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্য সরকার পশ্চিমবঙ্গে এক কোটি ৭০ লক্ষ সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ভুক্ত পড়ুয়াকে স্কলারশিপ দিয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

মাদ্রাসার কৃতি পড়ুয়াদের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

মঙ্গলবার আন্তর্জাতিক সংখ্যালঘু অধিকার দিবস। সেই উপলক্ষে ট্যুইটারে রাজ্যের সংখ্যালঘুদের শুভেচ্ছা জানান তৃণমূল নেত্রী মমতা। একই সঙ্গে ট্যুইট করে তুলে ধরেন দেশের অন্যান্য রাজ্যের তুলনায় বাংলার সংখ্যালঘু পড়ুয়াদের স্কলারশিপ দেওয়ার পরিমাণ। তিনি লিখেছেন, “আমরা সবাই সমান এবং ঐক্যবদ্ধ রয়েছি। বৈচিত্রের মধ্যে ঐক্যই আমাদের শক্তির উৎস। বাংলায় এক কোটি ৭০ লক্ষ সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ভুক্ত পড়ুয়া রাজ্য সরকারের স্কলারশিপ পেয়েছে।” এটা গোটা দেশের মধ্যে রেকর্ড বলে দাবি করেছেন মমতা।

মাদ্রাসার কৃতি পড়ুয়াদের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

নরেন্দ্র মোদীর সরকার ধর্মীয় অসহিষ্ণুতা, বিভাজনকে মদত দিচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল সহ সমস্ত বিরোধী দল। দেশের নানা জায়গায় সংখ্যালঘুদের জীবন বিপন্ন হচ্ছে। গোরক্ষার নাম করে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষ খুন হচ্ছে। এই নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী সরব হয়েছেন।

তৃণমূলের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে যে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের প্রত্যক্ষ মদতে যেখানে ধর্মীয় বিভাজন উস্কে দেওয়া হচ্ছে, সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা ও অধিকার রক্ষার প্রশ্ন উপেক্ষিত হচ্ছে, সেখানে আর্থিক সীমাবদ্ধতা সত্ত্বেও তৃণমূল কংগ্রেস সরকার স্কলারশিপ দেওয়ায় রেকর্ড করেছে।

অযোধ্যার বিতর্কিত রাম মন্দির নির্মাণে অর্ডিন্যান্স আনার তোড়জোড় শুরু করেছে বিজেপি। বিরোধীদের মতে, সঙ্ঘ পরিবারের কাছে নতিস্বীকার করছে কেন্দ্রের শাসকদল। ফলে সংবিধান নির্দেশিত ধর্মনিরপেক্ষতা খর্ব হচ্ছে তাদের হাতে। এই অবস্থায় বাংলা গোটা দেশের কাছে ব্যতিক্রমী ভূমিকা নিয়েছে।

---- -----