‘আমাদের সম্পর্কের মধ্যে একটা ডিসটেন্স চলে এসেছে…’

সাতপাকে ঘুরে একে অপরকে বলেছিল, ‘চিরদিনই তুমি যে আমার’।  কিন্তু, মন ভুলে যায় সংসার ‘বর বউ খেলা’। তাই, আচমকা হাওয়ায় তাসের ঘরের মতো ভেঙে যায় সম্পর্কের ভিত। ‘ভালবাসা জিন্দাবাদ’ বলে একসময় প্রেমের যে ঘুড়ি রাহুল-প্রিয়াঙ্কা আকাশে উড়িয়েছিল। সেই সুতো আজ কাটতে বসেছে। টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে এখন জোর ‘হই চই’ পরে গিয়েছে যে, ঘর ভাঙতে চলেছে রাহুল-প্রিয়াঙ্কার। তবে খবরটা সত্যি নাকি মিথ্যে, বাংলা টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকারের মুখ থেকে শুনলেন আমাদের প্রতিনিধি  মানসী সাহা৷ একান্ত সাক্ষাৎকারে বললেন অনেক অজানা কথা!  

প্রশ্ন: প্রথমেই কনগ্রাচুলেশন! তোমার ছবি কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভলে সিলেক্ট হওয়ার জন্য…
প্রিয়াঙ্কা: (হাসি দিয়ে) অনেক অনেক ধন্যবাদ…
প্রশ্ন: কেমন লাগছে এই সাফল্যে?
প্রিয়াঙ্কা: ভীষণননননন… ভালওওওও। এর আগে কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের সঙ্গে তেমন ভাবে জড়িত ছিলাম না। বলতে পার, এবছরই প্রথম। লাইন দিয়ে সিনেমা দেখা। অনেক মানুষের ভিড়। নতুন নতুন মানুষের সঙ্গে পরিচয়। সব মিলিয়ে দারুণ এক্সপিরিয়েনন্স।
প্রশ্ন: কিন্তু তুমি ফেসবুকে একটা পোস্ট করেছ যে, কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব নিয়ে তুমি ডিসপয়েন্টেড?
প্রিয়াঙ্কা: হ্যাঁ.., সেটার অবশ্য অন্য কারণে..

priyanka-sarkar1
বাংলা টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকার ৷ ছবি অভিনেত্রীর ফেসবুক পেজের সৌজন্যে

প্রশ্ন: কি সেই কারণ?  জানতে পারি কি?
প্রিয়াঙ্কা: সেদিন আমার ছবি ‘মায়া’র স্ক্রিনিংয়ের পর এক বন্ধুর শটফিল্ম দেখতে বসেছি। হঠাৎ কিছু লোক হলের মধ্যে ঢুকে লাইট জ্বালিয়ে দেয়। বলতে থাকে বেরিয়ে যান, পরের সিনেমার সময় হয়ে গিয়েছে! ওয়াট ইজ দ্যাট! একটা মুভি শেষ না হওয়ার আগেই দর্শকদের বের করে দেওয়া হচ্ছে হল থেকে। অনেক বোঝানোর পর শেষে পুরো ছবিটা দেখতে পাই। আই থিঙ্ক ম্যানেজমেন্টটা আরও বেটার হওয়ার দরকার ছিল।
প্রশ্ন: রিসেন্টলি তোমার কি কোন ছবি রিলিজ করতে চলেছে?
প্রিয়াঙ্কা: অনেক গুলো সিনেমা আসছে। সামনেই ‘রোম্যান্টিক নয়’ রিলিজ করতে চলেছে। যেখানে আমি সাহেবের বিপরীতে কাজ করেছি।
প্রশ্ন: প্রিয়াঙ্কা-রাহুলকে কবে অনস্ক্রিনে দেখছি?
প্রিয়াঙ্কা: হুমম… সেটা তো জানি না। তবে, ভালও স্ক্রিপ্ট পেলে অবশ্যই আমাদের একসঙ্গে পর্দায় দেখতে পাবেন দর্শকরা।
প্রশ্ন: আচ্ছা কিছুদিন ধরে ইন্ডাসট্রিতে একটা গুজব শোনা যাচ্ছে, রাহুল-প্রিয়াঙ্কার বিচ্ছেদ হতে চলেছে…
প্রিয়াঙ্কা: স্পিকিং ভেরি ফ্র্যাঙ্কলি! গুজব কিন্তু আপনা-আপনি রটে না। কথায় বলে, যা রটে তার কিছুটা তো বটে৷
প্রশ্ন:  বটে! তাহলে খবরটা কি সত্যি?
প্রিয়াঙ্কা: দেখা যাক কি হয়! কি হয়!

রাহুলের সঙ্গে প্রিয়াঙ্কা! এই ছবিতে চিঁড় ধরতে চলেছে? ছবি অভিনেত্রীর ফেসবুক প্রোফাইল থেকে পাওয়া
রাহুলের সঙ্গে প্রিয়াঙ্কা! এই ছবিতে চিঁড় ধরতে চলেছে? ছবি অভিনেত্রীর ফেসবুক প্রোফাইল থেকে পাওয়া
- Advertisement -

প্রশ্ন: কারণটা কি সুদীপ্তা?
প্রিয়াঙ্কা: না…! এটা আমি জোর গলায় বলতে পারি, তৃতীয় ব্যক্তির জন্য কখনও আমাদের সম্পর্ক ভাঙবে না। আমাদের সম্পর্কটা আটটট.. বছরের। তারও আগে থেকে আমরা বন্ধু। তাই এটা খুব ভুল হবে, যদি কেউ ভাবে থার্ড পার্সেনের জন্য আমাদের সম্পর্ক ভেঙে যাবে৷
প্রশ্ন:  আসল কারণটা কী?
প্রিয়াঙ্কা: বলতে পারও আমাদের সম্পর্কের মধ্যে একটা ডিসটেন্স চলে এসেছে। সেটা বিভিন্ন কারণে। যার সটআওট করার চেষ্টা চলছে….
প্রশ্ন: হোপ সব ঠিক হয়ে যাক…অন্য প্রশ্নে আসি, প্রথমবার ‘মহিষাসুরমর্দিনী’ করে কেমন লাগল?
প্রিয়াঙ্কা: অসাধারণ…! আমার না মাইথলজিকাল ব্যাপারগুলো খুন ইন্টারেস্ট লাগে। আমার সাতটা রূপ দেখানো হয়েছে। বেশ মজা পেয়েছি বলতে পারও।
প্রশ্ন: কোনও অসুবিধা হয়নি?
প্রিয়াঙ্কা:অসুবিধা বলতে তেমন কিছু ছিল না। ওই নাচটা নিয়ে একটু নার্ভাস ছিলাম। আসলে, নাচ করতে আমি ভালবাসি সেটা বলব না। তবে, নাচ করতে পারি।
প্রশ্ন: কোনও অপিনিয়ন নিয়েছিলে?
প্রিয়াঙ্কা: তেমন কারও নয়। তবে আমার একটা বন্ধুর সঙ্গে ব্যাপারটা ডিসকাস করি। আসলে নাচের সঙ্গে চোখ-মুখের একটা মুভমেন্ট থাকে। সেটা বজায় রাখতে চাইছিলাম। তাছাড়া কোয়েলদি, স্বাস্তিকাদি সহ অনেককে মহালয়াতে দেখেছিলাম আগে।

রাহুলের সঙ্গে প্রিয়াঙ্কা! এই ছবিতে চিঁড় ধরতে চলেছে? ছবি অভিনেত্রীর ফেসবুক প্রোফাইল থেকে পাওয়া
বাংলা টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকার ৷ ছবি অভিনেত্রীর ফেসবুক পেজের সৌজন্যে

প্রশ্ন: ছেলে হওয়ার পর প্রিয়াঙ্কার লাইফ কতটা চেঞ্জ হয়েছে?
প্রিয়াঙ্কা:চেঞ্জ নয়! বরং বলতে পারও বেটার হয়েছে। কাজ না থাকলে ওর রুটিন হয় আমার রুটিন। ঠিক সময় খাওয়া, ঘুমানো সব মিলিয়ে হেলদি একটা ডায়েট।
প্রশ্ন: কী চাও ছেলে বড় হয়ে অভিনেতা হোক?
প্রিয়াঙ্কা: আমি কিছু চাই না। তবে বাড়িতে একটা অ্যাক্টিংয়ের পরিবেশ রয়েছে। মা-বাবাকে টিভিতে অভিনয় করতে দেখছে। কী বলব এখনই আমাকে নকল করে। তাই ভবিষ্যতে যদি ও আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে আসতে চায়, আই হ্যাব নো প্রবলেম। তাছাড়া ও যদি ডাক্তার, পেন্টার, ইঞ্জিনিয়ার হতে চায়, তাতেও আপত্তি নেই।
প্রশ্ন: নেক্সট প্রিয়াঙ্কাকে আমার কোথায় দেখতে পাচ্ছি?
প্রিয়াঙ্কা: কথা চলছে একটা সিনেমার। ডিসেম্বর থেকে হয়ত ছবির শুটিং শুরু হবে। কিন্তু কাজটা শুরু হওয়ার আগে কিছু বলতে চাইছি না।

Advertisement
---