কাবেরী-বিক্ষোভে মাশুল গুনছে ‘সাইবার শহর’

বেঙ্গালুরু : কাবেরী নদীর জলবন্টন নিয়ে গতকালই রণক্ষেত্র হয়ে উঠেছিল আইটি শহর ৷ তামিলনাড়ু থেকে বেঙ্গালুরুতে আসা প্রায় সবকটি বাসেই আগুন লাগিয়ে দিয়েছে বিক্ষুব্ধ জনতা৷ পাশাপাশি আগুন লাগানে হয়েছে বেশকিছু গাড়িতেও৷ পরিস্থিতি যাতে নতুন করে আর খারাপ না হয় তার জন্য মোতায়েন রয়েছে বাড়তি প্রায় ১৫ হাজারেরও বেশি পুলিশ৷

 

অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতিতে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বেঙ্গালুরুর আইটি পরিষেবা৷ প্রায় অধিকাংশ আইটি কোম্পানিগুলি আপৎকালীন ছুটি ঘোষণা করে দিয়েছে৷ মুখ থুবড়ে পরেছে ই-মার্কেটিং বা অনলাইন বাজার পরিষেবা ৷ অন্যতম ই-মার্কেটিং সংস্থা আমাজনের তরফে জানানো হয়েছে , শহরের চরম অস্থিরতার কারণে একাধিক পরিষেবা এখনও পর্যন্ত গ্রাহকদের কাছে পৌঁছে দেওয়া যায়নি৷ ফলে অনেকেই অর্ডার বাতিল করে দিয়েছেন৷ তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে বাকী গ্রাহকদের খুব শীঘ্রই পরিষেবা পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন সংস্থার এক উচ্চপদস্থ কর্মী৷ একই অবস্থা অন্য এক সংস্থা ফ্লিপকার্টেরও৷ পাশাপাশি ইনফোসিস ও উইপ্রোর মতো সংস্থা গুলি বন্ধ থাকলেও ঈদের জন্য বেশকিছু আইটি হাব খোলা ছিল এদিন৷ তবে স্বাভাবিকভাবেই বন্ধ ছিল স্কুল , কলেজ ও একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি৷ এদিকে গত ২ সেপ্টেম্বর একাধিক ট্রেড ইউনিয়ন গুলির ডাকে বন্ধের জেরে বেশ ক্ষতি হয় সাইবার নগরীর ৷ এরপর কাবেরী নদীর জল বন্টন নিয়ে এই পরিস্থিতে৷ সব মিলিয়ে প্রায় ২২ তেকে ২৫ হাজার কোটি খরচ হয়েছে বলে প্রশাসন সূত্রে খবর৷

- Advertisement -

 

তবে পরিস্থিতির খুব দ্রুত পরিবর্তন হবে বলে আশা প্রকাশ করেছে কর্ণাটক সরকার৷ এদিকে বেঙ্গালুরুর ঘটনায় তিনি যথেষ্ট উদ্বেগ বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও৷ এবিষয় দুই রাজ্যের সরকারকে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে তিনি নির্দেশ দিয়েছেন৷

Advertisement ---
---
-----