ভাই ফোঁটায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বার্তা বিধাননগরে

সুভাষ বৈদ্য, কলকাতা: ‘মোরা একই বৃন্তে দুটি কুসুম হিন্দু মুসলমান৷’ কবির সেই সম্প্রীতির বার্তাই ফের একবার বাস্তব হয়ে উঠল ভ্রাতৃদ্বিতীয়ার দিনে৷ ভাই ফোঁটায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বার্তা৷ যেখানে হাজির প্রায় ৫০০ হিন্দু -মুসলমান ভাই বোনেরা৷ ধান দুর্বা চন্দনের আয়োজনে ছিল মিষ্টি মুখের আয়োজন৷

 

বিধাননগর পুরসভার ৩৮ নম্বর ওয়ার্ড৷ এই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নির্মল দত্তের উদ্যোগে আয়োজন করা হয় ভাই ফোঁটার অনুষ্ঠান৷ শুক্রবার সকালে দত্তাবাদ সিনেমা মাঠে এলাকার হিন্দু ও মুসলমান ভাই বোনেদের উজ্জ্বল উপস্থিতি৷ ওয়ার্ডের নানা সম্প্রদায়ের প্রায় ৪০ হাজার মানুষের বসবাস৷ এদের মধ্যে প্রায় ৫০০ জন ভাই-বোন, ভাই ফোঁটায় অংশগ্রহন করেন৷

আরও পড়ুন: ওজন কমায় ঘি, ভাবনা কি! রোজ একটু করে হয়ে যাক…

ভাইদের দীর্ঘায়ু ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বার্তা দিতে মুসলমান বোনেরা হিন্দু ভাইদের কপালে ফোঁটা দেন৷ অন্যদিকে হিন্দু বোনেরা মুসলমান ভাইদের কপালে ফোঁটা দেন৷ কাউন্সিলর নির্মল দত্তের উদ্যোগে গতবছর থেকে এই অনুষ্ঠানের পথ চলা শুরু৷ এ বছর সম্প্রীতির বাই ফোঁটার দ্বিতীয় বর্ষে পদার্পন করল৷

আরও পড়ুন: ভাইফোঁটায় বোনদের জন্য উপহার, বিনামূল্যে যত খুশি বাসে যাতায়াতের সুযোগ

এর আগে সম্প্রীতির অনেক উদাহরণ দেখা গিয়েছে এ রাজ্যে৷ বিশেষ করে দূর্গাপুজো ও কালীপুজোয়৷ উৎসবের আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্প্রীতির বার্তা দেন ‘‘ধর্ম আমার ধর্ম তোমার, উৎসব সবার” মুখ্যমন্ত্রীর এই বার্তা রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে প্রচারিত হয়েছে৷ আবার আতশবাজি ব্যবসায়ী সমিতি একটি বিশেষ আতশবাজি তৈরি করে সম্প্রীতির বার্তা দিয়েছে এবার৷ আতশবাজির নাম দেওয়া হয়েছিল ‘‘সম্প্রীতি”৷

এবার ভাই ফোঁটা উপলক্ষে হিন্দু -মুসলমান ভাই বোনেদের এক জায়গায় এনে শুধু নিজের ওয়ার্ড নয়, রাজ্য ও দেশবাসীকে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বার্তা দিতে চাইছেন বিধাননগর পুরসভার কাউন্সিলর৷

----
-----