“রাজনীতিতে কোনও দলই স্বচ্ছ নয়”

অনেক দিন আগেই ফুটবলের ময়দান থেকে বিদায় নিয়েছেন ‘পাহাড়ি বিছে’ বাইচুং ভুটিয়া৷গত লোকসভা নির্বাচনে পাহাড়ে তৃণমূলের প্রার্থী হয়ে রাজনীতির বলয়ে প্রবেশ করেন তিনি৷ তবে জিততে পারেননি৷ এবার ফের ঘাসচিহ্নের প্রতীকে বিধানসভার মাঠে খেলতে নেমেছেন তিনি৷ রয়েছে অফুরন্ত এনার্জি আর জেতার আত্মবিশ্বাস৷তাঁর সঙ্গে কথা বললেন কলকাতা 24×7-এর প্রতিনিধি দেবযানী সরকার

bhaichungকলকাতা 24×7: প্রচারে কেমন সাড়া পাচ্ছেন?

বাইচুং ভুটিয়া: ভালো৷

- Advertisement -

কলকাতা 24×7: লোকসভা নির্বাচনে হেরে যাওয়ার পর আবার বিধানসভায় দাঁড়ানোর ঝুঁকি নিলেন?

বাইচুং ভুটিয়া:  আমি দলের কর্মী৷ দলের নির্দেশেই আবার দাঁড়ালাম৷আর লোকসভার থেকে বিধানসভা নির্বাচনে লড়ার ধকল অনেক কম৷

কলকাতা 24×7: লোকসভার পর মাঝের দুবছর নিজেকে কীভাবে প্রস্তুত করলেন?

বাইচুং ভুটিয়া: এই দুবছরে রাজনীতির অনেক কিছুই শিখেছি৷

কলকাতা 24×7:এবার জেতার ব্যাপারে কতটা আত্মবিশ্বাসী?

বাইচুং ভুটিয়া: হানড্রেড পার্সেন্ট৷

কলকাতা 24×7: লোকসভা নির্বাচনের সময় বিরোধীরা আপনার বিরুদ্ধে বহিরাগত ইস্যুকে কাজে লাগিয়েছিল৷ এবারেও তো তারা প্রচারের সময় মানুষকে একই কথা বলতে পারে?

বাইচুং ভুটিয়া: হ্যাঁ৷ ওরা এটা বলে৷কিন্তু কেন বলে বুঝতে পারি না৷আমার তো শিলিগুড়িতে বাড়ি, ব্যবসা সব কিছুই আছে৷ আমি তো এখন শিলিগুড়িরই বাসিন্দা৷

কলকাতা 24×7: আপনি যে কেন্দ্রে দাঁড়িয়েছেন, সেখানে এলাকায় কী কী সমস্যা জানেন?

বাইচুং ভুটিয়া: জানি৷ গাড়ি পার্কিংয়ের সমস্যা, ট্রাফিকের সমস্যা তো আছেই৷ তাছাড়া আরও অনেক সমস্যা আছে৷

কলকাতা 24×7: শিলিগুড়িতে কিন্তু সিপিএমের ভালো দাপট৷ পুরবোর্ড এখন বামেদের দখলে৷ বামেদের প্রার্থী অশোক ভট্টাচার্য যথেষ্ট হেভিওয়েট নেতা এবং বর্তমানে শিলিগুড়ি পুরসভার মেয়র৷ লড়াটা কি খুব সহজ হবে?

বাইচুং ভুটিয়া: এখানে কোনও কঠিন লড়াই নেই৷তৃণমূল এখানে জিতবে৷

baichungকলকাতা 24×7: শিলিগুড়িতে তো আপনার নিজের দলেই গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব আছে৷ সে কারণে আপনার ভোটপ্রচারও বেশ কিছুটা দেরিতে শুরু হয়েছে৷ এই সমস্যাটা কি কিছুটা ভোগাবে না?

বাইচুং ভুটিয়া: গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব কোথায় নেই বলুন? গোষ্ঠী থাকলে দ্বন্দ্ব থাকবেই৷ সব দলেই আছে৷ তবে এখানে এখন আমাদের ভিতরের সেই সমস্যা পুরোপুরি মিটে গিয়েছে৷ আমরা সবাই এখানে এখন একসঙ্গে কাজ করছি৷

কলকাতা 24×7: অশোক ভট্টাচার্যের সঙ্গে এক সময় তো আপনার খুব ভালো সম্পর্ক ছিল৷ এখন ভোটের ময়দানে তিনিই আপনার প্রতিপক্ষ৷ প্রতিপক্ষকে কি তত জোরাল আক্রমণ করতে পারবেন?

বাইচুং ভুটিয়া: সে তো আমি আমার অনেক বন্ধু-দাদার বিরুদ্ধেও ফুটবল খেলেছি৷ তাতে কি তাঁদের সঙ্গে আমার সম্পর্ক খারাপ হয়ে গিয়েছে? ব্যক্তিগত সম্পর্কের সঙ্গে পেশাগত কিংবা রাজনীতির সম্পর্ক গুলিয়ে ফেলা উচিত হয়৷

কলকাতা 24×7: বেশিরভাগ তারকা প্রার্থীর বিরুদ্ধেই ভোট মিটে যাওয়ার পর এলাকায় দেখা না মেলার অভিযোগ ওঠে৷ আপনিও তো তৃণমূলের তারকা প্রার্থী৷ মানুষের এই অভিযোগ কি দূর করতে পারবেন?

বাইচুং ভুটিয়া:অন্য তারকা প্রার্থীদের কথা আমি বলতে পারব না৷ তবে আমি মানুষকে বলছি, পাঁচ বছর পর যদি মনে হয় আমি কোনও কাজ করিনি, তাহলে পরের বার আর ভোট দেবেন না৷ তবে এলাকায় বিধায়ককে চোখে দেখার থেকেও বড় কথা হল, তাঁর কাজটা চোখে দেখতে পাওয়া৷

কলকাতা 24×7: নির্বাচিত হলে এলাকায় প্রথম কী কাজ করার পরিকল্পনা আছে?

বাইচুং ভুটিয়া: সমস্যা তো অনেক৷ সেগুলো আলোচনা করে একে একে দূর করতে হবে৷তবে শহরে পার্কিং, ট্র্যাফিকের সমস্যা মেটাতেই হবে৷ সৌন্দ্যর্যায়নে জোর দিতে হবে৷

bhaichung4কলকাতা 24×7: নারদ স্টিং অপারেশনে আপনার দলের একাধিক নেতা-মন্ত্রীকে ঘুষ নিতে দেখা গিয়েছে৷ এর কোনও প্রভাব আপনার ভোটবাক্সে পড়তে পারে বলে মনে হয়?

বাইচুং ভুটিয়া: লোকসভা নির্বাচনের সময় বিরোধীরা সারদাকে ইস্যু করেছিল, পুরসভা নির্বাচনের সময় ত্রিফলা বাতিকে ইস্যু করল, কিন্তু তাতে কি কোনও লাভ হল? তৃণমূল কংগ্রেস আরও ভালো ফল করেছিল৷ এবারেও তাই হবে৷ কোনও প্রার্থী ভোটের সময় ডোনেশন নিতেই পারেন৷ সেটাকে ঘুষ বলা যায় না৷ সিপিএম, বিজেপি, কংগ্রেস যে কোটি কোটি টাকা খরচ করে প্রচার করে, তার সঠিক হিসেব কি তারা নির্বাচন কমিশনকে দেয়? অত টাকা কোথা থেকে আসে? কোনও রাজনৈতিক দলই স্বচ্ছ নয়৷

 

 

Advertisement
---