‘মোদী সরকারের পতন আসন্ন’

নয়াদিল্লি: পেট্রপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি থেকে টাকার মূল্য হ্রাসে মোদী সরকারকে বিঁধল কংগ্রেস৷ নয়াদিল্লিতে ভারত বনধে, প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি সোনিয়া গান্ধী, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং, কংগ্রেস প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধী সরব হলেন মোদী সরকারের বিরুদ্ধে৷

সোমবার প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং মোদীকে কটাক্ষ করে বলেন, দেশের অপ্রয়োজনীয় অনেক কিছুই মোদীর সরকার করেছে৷ আর এই সরকারকে পরিবর্তনের সময় খুব শীঘ্রই আসবে বলেও জানান তিনি৷ শুধু তাই নয় গণতন্ত্রের স্বার্থে বিরোধী দলগুলিকে একত্রিত হওয়ার বার্তাও দেন তিনি৷ পেট্রপণ্যের লাগাতার মূল্যবৃদ্ধিতে সোমবার রাজঘাট থেকে প্রতিবাদ শুরু হয় কংগ্রেস প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বে৷

পড়ুন: বনধে অফিসে আসতে না পারলে কি ব্যবস্থা নিতে পারে রাজ্য সরকার?

- Advertisement -

সোমবার সকাল ৯টা নাগাদ দিল্লির রাজঘাট থেকে রামলীলা ময়দান পর্যন্ত মিছিল করে কংগ্রেস৷ সেই মিছিলে দলীয় সভাপতির সঙ্গেই ছিলেন রাজ্যসভার কংগ্রেস নেতা গুলাম নবি আজাদ৷ ছিলেন শরোদ যাদবও৷ মিছিলে হাঁটার সময় রাহুল গান্ধীকে সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলতেও দেকা যায়৷

একই ইস্যুতে কংগ্রেসের সঙ্গেই এদিন সাধারণ ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয় সিপিএম সহ বাম দলগুলির তরফেও৷ তবে রাজপথে কংগ্রেসের মিছিলে এদিন সকালে দেখা যায়নি কোনও বাম নেতৃত্বকে৷ নীতিগত সমর্থন থাকলেও এদিনের বনধে যোগ দেয়নি তৃণমূল৷ কেন্দ্র বিরোধিতায় তারা মিছিল করবে বলে ঘোষণা করে৷ কেন্দ্র বিরোধী আন্দলনে বিরোধীদের এই মতান্তরকেই রবিবার কটাক্ষ করেছে বিজেপি৷ জাতীয় কর্মসমিতির বৈঠক থেকে প্রশ্ন তোলা হয় বিরোধী জোটের নেতৃত্ব নিয়ে৷

Advertisement ---
---
-----