তোলাবাজির অভিযোগে গ্রেফতার ভারতী ঘনিষ্ট পুলিশ অফিসার

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: তোলাবাজির অভিযোগে গ্রেফতার ভারতী ঘোষ ঘনিষ্ঠ পুলিশ অফিসার৷ গত দু’দিন ধরে লাগাতার তাঁর বাড়িতে তল্লাশি চালানোর পর মঙ্গলবার সন্ধেয় খড়গপুর লোকাল থানার প্রাক্তন পুলিশ অফিসার রাজশেখর পাইনকে গ্রেফতার করে সিআইডি৷ আগামীকাল বুধবার ধৃতকে আদালতে তোলা হবে৷

ওয়াকিবহাল মহলের ধারণা: তোলাবাজি কাণ্ডে যেভাবে একের পর এক ভারতী ঘনিষ্ঠ অফিসারকে গ্রেফতার করা হচ্ছে, তাতে পশ্চিম মেদিনীপুরের প্রাক্তন পুলিশ সুপারের গ্রেফতারি হওয়ার আশঙ্কা ক্রমেই ঘন হচ্ছে৷ ইতিমধ্যেই ভারতীদেবীর বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে পুলিশ৷ সূত্রের খবর: ভারতীদেবীর খোঁজে এরাজ্যে তো বটেই বাইরের একাধিক রাজ্যেও তল্লাশি অভিযান শুরু করেছেন গোয়েন্দারা৷

উত্তর ২৪ পরগণার গরু ব্যবসায়ী ইউনিস আলির অভিযোগ, খড়গপুরে ৬ নম্বর জাতীয় সড়ক থেকে তাঁর গাড়ি আটকে ৪৫ লক্ষ টাকা লুঠ করেছিলেন তৎকালীন খড়গপুর লোকাল থানার ওসি রাজশেখর পাইন৷ অভিযোগ, ভারতীদেবীর মদতেই ওই তোলাবাজি করা হয়েছিল৷ গত দু’দিন ধরে পশ্চিম মেদিনীপুরের দাসপুরে রাজশেখরবাবুর বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে একাধিক নথি উদ্ধার করেন গোয়েন্দারা৷ তারপরই এদিন সন্ধেয় তাঁকে গ্রেফতার করা হয়৷

এর আগে দাসপুরের এক স্বর্ণ ব্যবসায়ী ভারতী ঘোষ ও তাঁর ঘনিষ্ঠ পুলিশ অফিসারদের বিরুদ্ধে প্রতারণা ও তোলাবাজির অভিযোগ এনেছিলেন৷ গোয়েন্দা সূত্রের খবর, নোট বদলের সময় পুরনো নোট দিয়ে সোনা কেনা হয়েছিল৷ প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল দু’মাসের মধ্যে দ্বিগুন ফেরৎ দেওয়া হবে৷ কিন্তু তা করা হয়নি৷ ওই ঘটনারও তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷