নাগরিকত্ব বিলের প্রতিবাদে ভারতরত্ন প্রত্য়াখ্যান ভূপেন হাজারিকার পরিবারের

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: নাগরিকত্ব বিলের প্রতিবাদে ভারতরত্ন প্রত্য়াখ্যান করল ভূপেন হাজারিকার পরিবার৷

প্রসঙ্গত, গত মাসেই ঘোষণা করা হয়েছিল যে কিংবদন্তী এই সংগীতশিল্পীকে মরণোত্তর ভারতরত্ন দেওয়া হবে৷ প্রজাতন্ত্র দিবসের প্রাককালে এমনটাই ঘোষণা করেছিলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। এরপরেই প্রধানমন্ত্রী মোদী টুইট করেন। প্রধানমন্ত্রী লেখেন, “ভূপেন হাজারিকার গান ও সংগীত প্রজন্ম ধরে মানুষকে অনুপ্রাণিত করেছে। বিশ্বের কাছে ভারতীয় সংগীতকে জনপ্রিয় করে তুলেছেন তিনি। খুবই খুশি যে ভূপেন হাজারিকা ভারতরত্ন পাচ্ছেন।”

- Advertisement -

উল্লেখ্য, ১৯৭৭ সালে পদ্মশ্রী পুরস্কারে সম্মানিত করা হয় ভূপেন হাজারিকাকে। ২০০১ সালে পদ্মবিভূষণ দেওয়া হয় তাঁকে। এবার দেশের সর্বোচ্চ পুরস্কারে সম্মানিত করা হল তাঁকে। ২৩তম জাতীয় চলচ্চিত্র উৎসবে শ্রেষ্ঠ আঞ্চলিক ছবি ‘চামেলি মেমসাহেব’-র সংগীতের জন্য জাতীয় পুরস্কার পান তিনি। শ্রেষ্ঠ লোকসংগীত শিল্পী হিসেবেও অল ইন্ডিয়া ক্রিটিক অ্যাসোসিশেনের পুরস্কার পান। দাদা সাহেব ফালকে পুরস্কার, অসম সরকারের শংকরদেব পুরস্কার, জাপানে এশিয়া প্য়াসিফিক আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে সেরা সংগীত পরিচালকের পুরস্কার সহ একাধিক পুরস্কারে সম্মানিত করা হয়েছে তাঁকে।

২০১১ সালে প্রয়াত হন ভারতীয় সংগীতজগতের এই প্রবাদপ্রতীম শিল্পী। সোমবার নাগরিকত্ব বিলের প্রতিবাদে প্রয়াত সংগীতশিল্পীর পরিবার তার ভারতরত্ন প্রত্যাখ্যান করে বলে জানা যায়৷