BreakingNews- প্রকাশ্যে সরকারি কর্মীকে গুলি করে খুন

ছবি- প্রতীকী

পাটনা: বাড়িতে ঢুকে গুলি করে খুন করা হল এক সরকারি কর্মীকে৷ অজ্ঞাত পরিচয় দুষ্কৃতী এই ঘটনার পিছনে রয়েছে বলে দাবি পুলিশের৷ ওই সরকারি অফিসার আর কিছুদিন বাদেই অবসর নিতেন৷ কিন্তু কেন তাঁকে খুন করা হল, তা নিয়ে ধন্দে রয়েছে পুলিশ৷ প্রাথমিকভাবে পুলিশের ধারণা তাঁর বাড়িতে ডাকাতি করার উদ্দেশ্যে ঢুকেছিল দুষ্কৃতীরা৷ বাধা পেয়েই তাঁর ওপর গুলি চালানো হয় বলে খবর৷

বছর ৫৮-র রাজীব প্রশাসনিক পদের উচ্চপদস্থ আধিকারিক ছিলেন৷ পরিকল্পনা বিভাগের অফিসার ছিলেন তিনি বলে খবর৷ পাটনাতেই কর্মরত ছিলেন রাজীব৷ পুলিশ জানিয়েছে গুলি করার কিছুক্ষণের মধ্যেই তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় রুবান মেমোরিয়াল হাসপাতালে৷ সেখানে কিছুক্ষণের মধ্যেই মৃত্যু হয় তাঁর৷

মঙ্গলবার ভোরে এই ঘটনা ঘটায় রীতিমতো আতঙ্কে এলাকার লোকজন৷ পুলিশি নিরাপত্তার অভাব রয়েছে এলাকায়, অভিযোগ তাঁদের৷ বিহারের সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা যে শিকেয়, সে অভিযোগও করেছেন তাঁরা৷

এই ঘটনার একদিন আগেই, রাষ্ট্রীয় লোক সত্তা পার্টি বা আরএলএসপি-র নেতা মণীশ সাহানি নিজের অফিসে খুন হন৷ তাঁকেও গুলি করে হত্যা করা হয়৷ বৈশালি জেলার ঝান্দাহা এলাকার ঘটনাতেও চাঞ্চল্য ছড়ায়৷ এই ঘটনার পরে ঝান্দাহা থানার বাইরে বিক্ষোভ দেখান মৃত নেতার সমর্থকরা৷ বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে এলাকা৷

তার আগে, ৩০শে জুলাই বিজেপি নেতা শত্রুঘ্ন সিনহার বাড়ির সামনে গুলি চলে৷ সেখানে অবশ্য বাড়ির সামনে পাহারায় থাকা পুলিশ কর্মীর সার্ভিস রিভলবার থেকে গুলি চলে৷ তবে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। পরে অবশ্য জানা যায়, অসাবধানতাবশত গুলি বেরিয়ে গিয়েছিল৷ পুরো বিষয়টিই আকস্মিকভাবেই ঘটে বলে জানা গিয়েছে। যদিও কোনও হতাহতের খবর মেলেন । আর সেই সময় বাড়িতেও ছিলেন না শত্রুঘ্ন সিনহা ।

প্রসঙ্গত, বিহারের পাটনা সাহিব লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ হওয়ার পাশাপাশি তিনি প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী৷ অটল বিহারী বাজপেয়ীর মন্ত্রী সভার স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দফতরের মন্ত্রী ছিলেন তিনি৷ সে কারণেই ২৪ ঘণ্টা তাঁর বাড়ির সামনে পুলিস কনস্টেবল মোতায়েন রাখা হয়। সেই পুলিস কনস্টেবলের সার্ভিস রিভলভার থেকেই এই গুলি চলে।

----
-----