বিলাসপুর: ছত্তিসগড়ে বন্ধ্যাত্বকরণ করাতে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে ১৪ জন মহিলার। তারপরই উঠে এল এক ভয়াবহ তথ্য। জানা গেল ওষুধে ছিল জিঙ্ক ফসফেট, যা ইঁদুর মারার কাজে লাগে। এই ওষুধে মৃত্যু হতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।
রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের সচিব অলোক শুক্লা জানিয়েছেন, ‘জিঙ্ক-ফসফাইড মেশানো এই ওষুধ খেয়েই মৃত্যু হয়েছে ওই ক্যাম্পের মহিলাদের। এটা সাধারণত ইঁদুরের বিষ তৈরির জন্য ব্যবহার করা হয়।’ তদন্ত কমিটি কিছুদিনের মধ্যেই এই ঘটনার রিপোর্ট পেশ করবে।
ইতিমধ্যেই ওই ওষুধ কোম্পানি নিষিদ্ধ করা হয়েছে রাজ্যে। ওষুধ দোকানগুলিতে তল্লাশি চালাচ্ছে স্বাস্থ্য দফতরের প্রতিনিধিদল।রায়পুরে একটি দোকানে তল্লাশি চালানোর সময় জিঙ্ক ফসফাইড পাওয়া গিয়েছে বলে স্বাস্থ্য দফতরে সূত্রে জানা গিয়েছে। ওষুধের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে কলকাতা, দিল্লি ও নাগপুরে।
তদন্ত শেষেই সম্পূর্ণ তথ্য দেওয়া যাবে বলে জানানো হয়েছে। মহাওয়ার ফার্মা প্রাইভেট লিমিটেড নামে ওই কোম্পানির তৈরি ৪৩.৩৪ লক্ষ ট্যাবলেট বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।
এখনও বিলাসপুরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ১২২ জন মহিলা।

----
--