নয়াদিল্লি: দিল্লিতে সরকার গড়তে মরিয়া বিজেপি প্রচ্ছন্নে ঘোড়া কেনাবেচার (হর্স ট্রেডিং) সংস্কৃতি আমদানি করছে বলে অভিযোগ তুলল আপ৷ টাকার টোপ দিয়ে বিধায়ক হর্স ট্রেডিং করতে চাইছে বিজেপি৷
আপ বিধায়ক রাজেশ গর্গের অভিযোগ, টাকার লোভ দেখিয়ে তাঁকে পকেটে পোড়ার চেষ্টা করেছিল বিজেপি৷ আপ ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার প্রস্তাবও দেওয়া হয় তাঁকে৷ ঠিক কী প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল তাঁকে?
এর উত্তরে গর্গ জানান, ‘বিজেপি নেতাদের বক্তব্য, অস্তিত্ব সংকটে ভুগছে আপ৷ আপনাদের মতো প্রবীণ নেতারা এবার কী করবেন? আপে পড়ে থাকার কোনও মানে হয় না৷ এর চেয়ে বিজেপি’তে যোগ দেওয়া অনেক বেশি লাভজনক৷’ এমনকী দলবদলে তাঁর লাভ-ক্ষতির খতিয়ানও বিশ্লেষণ করে বোঝানো হয়৷বলা হয়, বিজেপিতে যোগ দিলে টাকার অভাব হবে না তাঁর৷
কী ভাবে সরকার গঠনের পরিকল্পনা করছে বিজেপি? এর উত্তরে গর্গ জানান, বর্তমানে ২৯ জন বিধায়ক রয়েছে আপে৷ এর মধ্যে কোনও ভাবে পাঁচ বিধায়ককে কিনতে পারলেই তাদের কাছে সরকার গঠনের পথ মসৃণ হয়ে যাবে৷ বা কোনও ভাবে আপের পাঁচ বিধায়ক ইস্তফা দেন তাহলেও দিল্লিতে সরকার গড়ার পথে বিজেপি’র সামনে প্রতিবন্ধকতা থাকবে না৷তাঁরা পৃথক বেঞ্চে বসে দলকে সমর্থন করলে তাঁদের টিকিট দেবে বিজেপি৷যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে গেরুয়া শিবির৷আপ বিধায়কদের সঙ্গে সরকার গড়ার বিষয়ে কোনও কথা হয়নি বলে জানিয়েছেন প্রবীণ বিজেপি নেতা নীতিন গড়কড়ি৷

----
--