জোট ধাক্কায় গো-বলয়ে ৫০টি কেন্দ্র হারাচ্ছে বিজেপি: রিপোর্ট

লখনউ: ক্ষতির খাতায় ৫০টি লোকসভা আসন৷ এই হিসেব দেখে চমকে যাচ্ছেন বিরোধীরা৷ শুরু হয়ে গিয়েছে বিশদ তথ্য সংগ্রহ৷ আর শাসক পক্ষের বাড়ছে টেনশন৷ সবকিছুর মূলে সেই মায়ার খেলা৷ যে খেলায় আপাতত দু’টি সম্মানজনক লোকসভা আসন খুইয়েছে বিজেপি৷ একটি গোরক্ষপুর, যেখান থেকে নির্বাচিত হতেন যোগী আদিত্যনাথ৷ অন্যদিকে ফুলপুর, যেখানকার সাংসদ ছিলেন কেশব প্রসাদ মৌর্য৷

উত্তরপ্রদেশে গত বিধানসভা নির্বাচনে বিপুল জয় পেয়ে এই দুই শীর্ষ নেতাকে মুখ্যমন্ত্রী ও উপমুখ্যমন্ত্রী করা হয়৷ তাঁদের ছেড়ে যাওয়া আসনেই হয়ে গেল উপনির্বাচন৷ তাতে পরাজিত হয়েছে বিজেপি৷

ভোট বিশেষজ্ঞদের দেওয়া ও বিভিন্ন তথ্য বিশ্লেষণে ‘ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস’ ও ‘জনসত্তা’ সংবাদপত্র গোষ্ঠী একটি রিপোর্ট দিয়েছে৷ তাতে বলা হয়েছে, বিজেপি মায়াবতী-অখিলেশের জোট বড়সড় ধাক্কা দিতে চলেছে৷ অন্তত ৫০টি লোকসভা আসন হাতছাড়া হচ্ছে গেরুয়া শিবিরের৷ চিন্তাজনক তথ্য৷ যদিও রিপোর্টে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী মোদীর সংসদীয় কেন্দ্র বারাণসীতে ভোট বাড়ছে বিজেপির৷ একইভাবে মথুরা, গাজিয়াবাদ, গৌতমবুদ্ধ নগরেও বড়সড় ব্যবধানে এগিয়ে থাকবেন পদ্ম চিহ্নের প্রার্থীরা৷

- Advertisement -

তবে বহুজন সমাজ পার্টি ও সমাজবাদী পার্টির জোট অনেক কিছু হিসেব পাল্টে দিতে পারে৷ গো বলয়ে বিজেপি-কে রুখতে মায়াবতী হাত মিলিয়েছেন শত্রুপক্ষ মুলায়ম সিং-অখিলেশ যাদবের সঙ্গে৷ ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে এই জোট বড়সড় চেহারা নেবে বলেই মনে করা হচ্ছে৷ ‘ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস’ ও ‘জনসত্তা’ সংবাদপত্র গোষ্ঠীর রিপোর্ট, ২০১৭ সালের উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা আসনের ফলাফলকে ভিত্তি করেই তৈরি৷ তাদের দাবি, তখন বিএসপি ও সপা পরস্পর বিরোধী৷ দু’পক্ষের ভোটকে যুক্ত করলে আগামী লোকসভা নির্বাচনে ৫০টি কেন্দ্রে জোট এগিয়ে৷ অন্তত ৫৭টি আসনে বিজেপি হারের মুখে৷ আর ২৩টি কেন্দ্রে পদ্ম শিবিরের জয় নিশ্চিত৷ গত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট উত্তর প্রদেশের ৮০টি লোকসভা আসনের মধ্যে ৭৩টি-তে জয়ী হয়েছিল৷

বিশ্লেষকরা জানিয়েছেন, ২০১৪ সালের লোকসভায় বিএসপি ও সমাজবাদী পার্টি পরস্পর বিরোধী হয়েই নির্বাচনে লড়া করে৷ গত বিধানসভাতেও এই বিরোধিতা জারি ছিল৷ সেই নির্বাচনে রাজ্যে লেগেছে পদ্মের দোলা৷ একার ক্ষমতায় ৩২৫টি আসন ছিনিয়ে নিয়ে সরকার গড়েছে বিজেপি৷ পরিস্থিতি বুঝেই সমাজবাদী পার্টির সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন মায়বতী৷ তার ফল মিলেছে৷ সেই নিরিখে আশার আলো বিরোধী শিবিরে৷ আর জটিল অংকের মাঝে বিপুল শক্তি নিয়ে বিরোধীদের ছিন্ন ভিন্ন করতে মরিয়া হয়ে গিয়েছে বিজেপি৷

Advertisement ---
---
-----