স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: বিজেপি পার্টি অফিস ভেঙে জ্বালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। বুধবার সকালের দিকে ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার ইছাপুরে।

বুধবার সকালের দিনে বনধের সমর্থনে ইছাপুর স্টেশনে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে বিজেপি কর্মীরা। রেল লাইনের উপরে দলীয় ব্যানার এবং পতাকা নিয়ে বিক্ষোভ দেখানো হয়, করা হয় রেল অবরোধ।

Advertisement

আরও পড়ুন- অবরোধের জেরে শিয়ালদহের একাধিক শাখায় ব্যাহত পরিষেবা

যার জেরে ব্যাহত হয় শিয়ালদহ মেইন শাখার স্বভাবিক রেল পরিষেবা। প্রায় আধ ঘণ্টা ধরে চলে অবরোধ। এরপরে নোয়াপাড়া থানার পুলিশের হস্তক্ষেপে উঠে যায় অবরোধ।

এর ঘণ্টা খানেক পরেই ইছাপুর স্টেশন সংলগ্ন বিজেপির পার্টি অফিসে হামলা চালানো হয়। অভিযোগ তৃণমূল কংগ্রেসের স্থানীয় নেতা-কর্মীরা হামলা চালায় ইছাপুরের এক নম্বর প্ল্যাটফর্মের টিকীত কাউন্টার সংলগ্ন ওই পার্টি অফিসে।

আরও পড়ুন- মমতাকে খুন করে শান্তি ফেরাতে চান মৃত রাজেশের মা

বিজেপির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে তৃণমূলের গুণ্ডাবাহিনী প্রথমে পার্টি অফিসে ভাঙচুর চালায়। এরপরে সমগ্র পার্টি অফিসে আগুন জ্বালিয়ে দেওয়া হয়। এখানেই তাণ্ডব শেষ হয়নি বলে অভিযোগ বিজেপির। পার্টি অফিসে থাকা কয়েকজন নেতাকর্মীর উপরেও হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ।

জখম কর্মী

ওই হামলায় বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী জখম হয়েছে বলেও অভিযোগ করেছে বারাকপুর জেলা বিজেপি নেতৃত্ব। অবরোধ করার অপরাধেই এই হামলা চালানো হয়েছে বলেও দাবি পদ্ম শিবিরের।

বারাকপুর জেলা(সাংগঠনিক) বিজেপি সভাপতি অহিন্দ্রনাথ বসু বলেছেন, “ইছাপুরে আমাদের কর্মীরা রেল অবরোধ করেছিল যার কারণে ওখানে আমাদের পার্টি অফিসে হামালা চালায় তৃণমূল। মণ্ডল সভাপতি উজ্জ্বল সেন এবং বিশ্বজিৎ নামের দুই কর্মী জখম হয়েছেন। তাঁদের বারাকপুর বিএন বসু মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে।”

জখম কর্মী
----
--