‘নাগরিক পঞ্জির নামে ঘৃণা ছড়াচ্ছে বিজেপি’

ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: অসমের নাগরিক পঞ্জি নিয়ে ভারতীয় জনতা পার্টিকে আক্রমণ করলেন এআইএমএইএম প্রধান আসাদুদ্দিন ওয়াইসি। ওই রাজ্যের সরকার এবং কেন্দ্রের সরকার নাগরিক পঞ্জির তালিকার মাধ্যমে সমাজে ঘৃণা ছড়াচ্ছে বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি।

আরও পড়ুন- গোরক্ষক: হিংসা ছড়ালেই কড়া ব্যবস্থার বার্তা মোদীর

গত ৩০ জুলাই অসমের নাগরিক পঞ্জির দ্বিতীয় খসড়া তালিকা প্রকাশিত হয়েছে। যেখানে বাদ গিয়েছে ৪০ লক্ষেরও বেশি আবেদনকারীর নাম। যা নিয়ে চর্চা শুরু হয়েছে সমগ্র দেশ জুড়ে। নাগরিক পঞ্জির নামে রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করার অভিযোগ উঠেছে পদ্ম পরিচালিত অসম রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে।

- Advertisement -

পালটা বিজেপি-র দাবি, অনুপ্রবেশকারীদের দেশে কোনও জায়গা দেওয়া হবে না। সকল অনুপ্রবেশকারীদের দেশ থেকে ফের পাঠানো হবে। যারা দীর্ঘদিন ধরে ভারতের বাসিন্দা তাদের উপরে নাগরিক পঞ্জি কোনও প্রতিকূলতা সৃষ্টি করবে না। চূড়ান্ত তালিকায় সমস্ত ত্রুটি ঠিক করে নেওয়া হবে বলেও দাবি করেছে বিজেপি নেতৃত্ব।

আরও পড়ুন- বাংলায় ছোট শিল্পে জোয়ার আনতে ‘সিনার্জি’র আয়োজন মমতার

এই নাগরিক পঞ্জির তালিকা নিয়ে উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে ভারতীয় জনতা পার্টি ঘৃণা ছড়াচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন হায়দরাবাদের সাংসদ আসাদুদ্দিন ওয়াইসি। তিনি বলেছেন, “বিজেপি সভাপতি নাগরিক পঞ্জির তালিকায় বাদ যাওয়া ব্যক্তিদের অনুপ্রবেশকারী বলছেন। আবার প্রধানমন্ত্রী বলছেন কোনও ভারতীয়কে দেশ থেকে বিতাড়িত করা হবে না। সমাজে ঘৃণা ছড়ানোটাই তাঁদের মুখ্য উদ্দেশ্য।”

আরও পড়ুন- এত বছর পর চ্যালেঞ্জটা জিতলেন, অকপট স্বীকারোক্তি শুভেন্দু অধিকারীর

নাগরিক প্নজির তালিকা নিয়ে সবথেকে বেশি প্রতিবাদের সুর শোনা গিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের মুখে। পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে নাগরিক পঞ্জির বিরুদ্ধে কালা দিবস পালন করেছে ঘাসফুল শিবির। অসমে প্রতিনিধি দলও পাঠিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যদিও তাঁদের বিমানবন্দরের বাইরে যেতে দেওয়া হয়নি।

Advertisement
---